এবার দিনাজপুরের ডিসির নারী কেলেঙ্কারী ফাঁস (ভিডিও)

এবার দিনাজপুরের ডিসির নারী কেলেঙ্কারী ফাঁস (ভিডিও)

মাস দুয়েক আগে দেশজুড়ে আলোচিত হয় জামালপুরের জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরের সঙ্গে তারই অধীনস্থ নারী অফিস সহকারীর অনৈতিক সম্পর্ক। এবার একই কেলেঙ্কারী বেরিয়েছে দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মাহমুদুল আলমের। তিন সন্তানের জননী একজন শিক্ষিকার সঙ্গে নানা প্রলোভনে অবৈধভাবে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগ তুলেছেন ভুক্তভোগী ওই নারীই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লাইভে এসে তিনি পুরো ঘটনা তুলে ধরে বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতার কথাও বলেন। তার ওই লাইভ ভিডিওটি ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিও বার্তায় ওই নারী দাবি করেন, ডিসি মাহমুদুল আলম নানা প্রলোভন দেখিয়ে তার সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। সেই ফাঁদে পা দিয়ে সংসার ভেঙেছে তার।

ওই নারী জানান, জামালপুরের ডিসির নারী কেলেঙ্কারী ফাঁস হওয়ার পর তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন দিনাজপুরের ডিসি মাহমুদুল। ঘটনা জানাজানি হলে হত্যার হুমকিও দেয়া হয় বলে অভিযোগ তার।

ওই নারী জানান, তিনি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। জেলা প্রশাসক ওই নারীর সঙ্গে ভিডিও কল রেকর্ড, মোবাইল কল রেকর্ডসহ তাদের মধ্যেকার সম্পর্কের যাবতীয় প্রমাণাদি মুছে দিতে বলেন এবং বিষয়গুলো কাউকে না জানাতে হুশিয়ার করেন। তাকে চাকরি থেকে বহিষ্কার ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে রাজাকারের সন্তান বানিয়ে দেয়ারও হুমকি দেন ডিসি। প্রাণে মেরে ফেলতে পারে তাই এই ভিডিও করেছেন বলে উল্লেখ করেন ওই নারী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ডিসির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করার পর দিনাজপুরে তোলপাড় শুরু হয়। অভিযোগকারী ওই নারী দিনাজপুরে একটি স্কুলে শিক্ষকতা করেন। তার সঙ্গে সাংবাদিকরা যোগাযোগ করলে তিনি এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম বলেন, ‘আমার উর্ধ্বতনরা তদন্ত করছেন, তারাই এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন।’


নাবা/ডেস্ক/তারেক

রিলেটেড নিউজঃ