রাবিতে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ

রাবিতে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি জানিয়ে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও মহানগর শাখার নেতাকর্মীরা কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে।

আজ রোববার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বুদ্ধিজীবী চত্বরের পাদদেশে কুশপুত্তলিকা দাহ করে পদত্যাগ ও বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

এর আগে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশে মহানগর শাখার আহবায়ক ইয়াসিন আরাফাত অন্তর বলেন, দেশের প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয় তার নিজস্ব সত্তা থেকে সরে গিয়ে দুর্নীতি, লুটপাট এবং কুচক্রের কারখানা হিসেবে আমাদের সামনে প্রতীয়মাণ হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে 

এ ধরনের দুর্নীতির কথা আজ আমাদের কাছে নতুন কিছু নয়। তবে বর্তমানে শিক্ষার্থারা যখন তাদের ন্যায্য দাবি আদায়ের জন্য নেমে আসছে তখনই তাদের ওপর হামলা, দমন-পীড়ন শুরু হচ্ছে। আর এই দমন-পীড়নের প্রত্যক্ষ সহায়তা করছে প্রশাসন।

অন্তর আরো বলেন, সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের নেতৃত্বে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ এটা হতে পারে না। আমরা এসকল দুর্নীতিপরায়ণ উপাচার্যের অপসারণ করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

ছাত্র ফেডারেশন বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক মোহাব্বত হোসেন মিলনের সঞ্চালনায় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রাশেদ রিমন, মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক জিন্নাত আরা সুমু। 


নাবা/ডেস্ক/হাফিজ

রিলেটেড নিউজঃ

    মতামত দিন