ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোর ধর্মঘট, রোগীদের ভোগান্তি

ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোর ধর্মঘট, রোগীদের ভোগান্তি

হাসপাতালে হামলা-ভাঙচুর এবং চিকিৎসককে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে পটুয়াখালী জেলার সবগুলো বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়গনস্টিক সেন্টারে শুরু হয়েছে ৭২ ঘণ্টার ধর্মঘট। 

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আজ রোববার সকাল থেকে এ ধর্মঘট শুরু হয়।

গত ৭ সেপ্টেম্বর রাতে পটুয়াখালী শহরের সেন্ট্রাল হাসপাতালে একদল সন্ত্রাসী হামলা ও ভাঙচুর চালিয়ে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মশিউর রহমানকে হত্যার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করলেও পুলিশ মামলা গ্রহণ করেনি বলে অভিযোগ সংশ্লিষ্টদের।


বাংলাদেশ মেডিকলে অ্যাসোসিয়েশন, পটুয়াখালী ক্লিনিক ও ডায়গনস্টিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং জেলা কেমিস্ট্র ও ড্রাগিস্ট সমিতি আইনি সহায়তা না পাওয়ার অভিযোগে গত ১৮ সেপ্টেম্বর পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ৭২ ঘণ্টার ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়।

এদিকে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা হাসপাতালে প্রয়োজনীয় চিকিৎসক এবং পর্যাপ্ত শয্যা না থাকায় অধিকাংশ রোগীরা বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে চিকিৎসাসেবা নিয়ে থাকেন। ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ধর্মঘট চলায় জেলার রোগীদের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে।


নাবা/ডেস্ক/কেএইচ/

রিলেটেড নিউজঃ

    মতামত দিন