সাকিবের অনবদ্য ইনিংসে বাংলাদেশের জয়

সাকিবের অনবদ্য ইনিংসে বাংলাদেশের জয়

সাকিব আল হাসানের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ষষ্ঠ ম্যাচে আফগানিস্তানকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ে সিরিজের ফাইনালের আগে মনসতান্তিক দিক থেকে আফগানদের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে থাকবে টাইগাররা।

চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে স্কোরবোর্ডে ১৩৮ রান জমা করে আফগানিস্তান। জবাবে ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌছে যায় অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের দল।  

আফগানদের দেওয়া টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ। স্কোরবোর্ডে ১২ রান জমা হতেই লিটন দাস ৪ ও নাজমুল হোসেন শান্ত ফেরেন ব্যক্তিগত ৫ রানে।

তৃতীয় উইকেট জুটিতে সাকিবকে দারুণভাবে সঙ্গ দেন মুশফিকুর রহিম। ১০.৪ ওভার পর্যন্ত পিচে থেকে দুজনে মিলে ৫৮ রানের জুটি গড়লে জয়ের পথে এগোতে থাকে বাংলাদেশ। ২৫ বলে ২৬ রান করে সাজঘরে ফিরে যান মুশফিক। 

এরপর উইকেটে এসে থিতু হতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৬)। ১৩.৪ ওভারে দলীয় ৯৩ রানে আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। এর পরের দুই ওভারে পর্যায়ক্রমে ফেরেন সাব্বির রহমান (১) ও আফিফ হোসেন (২)।   

এক পাশ আগলে চোখ ধাঁধানো সব শটে প্রতিপক্ষ দলের বোলারদের একাই নাস্তানাবুদ করছিলেন সাকিব। চাপের মুহূর্তে আটে নেমে সাকিবকে সঙ্গ দেন মোসাদ্দেক হোসেন। সাকিবের সঙ্গে ৩৫ রানের জুটি গড়েন তিনি। 

শেষপর্যন্ত ৪৫ বলে ৮টি চার ও ১টি ছয়ে দিয়ে সাজানো সাকিবের ৭০ রানের ইনিংসে জয়ের বন্দরে পৌঁছায় বাংলাদেশ। মোসাদ্দেক ১২ বলে ১৯ রানে অপরাজিত থাকেন। বল হাতে আফগান নাভিন-উল-হক ও রশিদ খান ২টি করে উইকেট শিকার করেন।

এর আগে, ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি অতিথিরা। দ্বিতীয় ওভারের পঞ্চম বলে মাহমুদুল্লাহ ক্যাস মিস করলে, আফগান ওপেনার গুরবাজের উইকেট বঞ্চিত হয় শফিউল ইসলাম। এরপর শুরু হয় সফরকারীদের ব্যাটিং তাণ্ডব। দলীয় ৯ রানের মাথায় যে উইকেটের পতন হয়, সেই উদ্বোধনী জুটিতে ৭৫ রান করে আফগানিস্তান। দশম ওভারের তৃতীয় বলে প্রথম সাফল্য পায় বাংলাদেশ। আফিফের বলে ব্যক্তিগত ৪৭ রানের আউট হন জাজাই। একই ওভারে পঞ্চম বলে আসগর আফগানকে শূন্য রানে সাজঘরে ফেরান আফিফ।

দলীয় ৮০ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন গুরবাজ। ফেরার আগে ব্যক্তিগত রানের খাতায় ২৯ রান যোগ করেন এই ওপেনার। এরপর শুরু হয় আফগান ব্যাটসম্যানদে আসা-যাওয়ার মিছিল। দলীয় ১১৪ রানের মধ্যে সাজঘরে ফেরেন আরো তিন ব্যাটসম্যান। এরপর শফিকউল্লাহ'র ২৩ ও রশীদ খানের অপরাজিত ১১ রানে ভর করে, ৭ উইকেটে ১৩৮ রান করে আফগানিস্তান।   

ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন সাকিব।

নাবা/ডেস্ক/কেএ 

রিলেটেড নিউজঃ

    মতামত দিন