ইলিশ গেলো কই?

ইলিশ গেলো কই?

চলছে ইলিশের ভরা মৌসুম। প্রতি বছরের মতো এবারও এই মৌসুমে মাছের বাজার ইলিশের দখলে থাকার কথা থাকলেও চাহিদার তুলনায় যোগান নেই বাজার গুলোতে। এর কারণ হিসেবে বিক্রেতার বলছেন, গত সপ্তাহ থেকে বাজারে মাছ আসা কমেছে ফলে চাহিদা থাকলেও তারা মাছ পাচ্ছেন না। আর ক্রেতারা বলছেন, আগের বছরের তুলনায় ইলিশের দাম অনেক বেড়েছে।

আজ শুক্রবার সকালে রাজধানীর কারওয়ান বাজার মাছের আড়ত ঘুরে দেখা গেছে, মাছ কম থাকায় দ্রুতই শেষ হয়ে গেছে বেঁচা বিক্রি।


ইলিশের দাম নিয়ে কথা হয় কারওয়ান বাজারের পাইকারি বিক্রেতা সৌরভ আহমেদের সঙ্গে। নাগরিক বার্তাকে তিনি বলেন, এখন ইলিশের ভরা মৌসুম। কিন্তু বাজারে ইলিশ মাছ আগের বছরের চেয়ে কম। পদ্মা নদীতে মাছ কম ধরা পড়ছে। চাঁদপুর এবং বরিশাল থেকে চাহিদা মতো ইলিশ পাচ্ছি না। আগে ইলিশের মৌসুমে বাজারে পা ফেলার যায়গা থাকতো না। ভোর রাত থেকে সকাল ৯-১০ টা পর্যন্তও বাজারে বেঁচা বিক্রি চলতো। কিন্তু এই মৌসুমে একদিনও এমন হয়নি।

পাইকারদের মতো একই কথা বলছেন রাজধানীর বিভিন্ন খুচরা বাজারের বিক্রেতারা। কথা হয় রাজধানীর খিলগাঁও এলাকার মাছ বিক্রেতা উজ্জল হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘ইলিশের ভরা মোসুম হলেও বাজারে এহন ইলিশ নাই। আর যা আছে তার দাম অনেক। আমরা বেশি দামে কিনছি এহন বাধ্য হয়ে বেশি দামে বেঁচি। গত ৪-৫ দিন ধরে ইলিশের দাম বাড়ছে। পাইকাররা বলছে নদীতে নাকি মাছ ধরা পরছে না তাই তারাও বেশি দামে বেঁচতেছে।

দাম বাড়ার কারণ হিসেবে এই বিক্রেতা বলছেন, হঠাৎ করে দক্ষিণ অঞ্চলের আবহাওয়া খারাপ হয়ে যাওয়ার কারণে জেলেরা নদীতে যেতে পারছে না। এমন কি সাগর উত্তাল থাকার কারণে বরিশাল, বরগুনা, পটুয়াখালীর জেলাও মাছ ধরতে পারছে না ফলে দাম বেড়েছে ইলিশের।

রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, আঁকার ভেদে রয়েছে দামের ভিন্নতা। ৫০০ থেকে ৭০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের দাম প্রতি পিচ বিক্রি হচ্ছে ৩০০ টাকায় আর ১ কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার থেকে ১২০০ টাকায়। ১ কেজি ২০০ গ্রাম ওজনে ইলিশ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০০ থেকে ১৬’শ টাকায়। তবে এলাকা ভেদে দামের কম বেশি রয়েছে বলে জানান বিক্রেতারা।

কারওয়ান বাজারের খুচরা মাছের দোকানে ইলিশ মাছ কিনতে এসেছেন ধানমন্ডির বাসিন্দা শরিফ উদ্দিন। তিনি বলেন, এখানে (কারওয়ান বাজার) এসেছি কারণ পাশেই পাইকারি বাজার তাই একটু কমে ভালো মাছ কিনতে পারবো সেই আশায়। কিন্তু এলাকার বাজারের তুলনায় তো দেখছি দাম বেশি। ১ কেজি ২০০ গ্রাম ওজনের মাছে প্রতি কেজিতে দাম চায় ১৫০০ থেকে ১৮০০ টাকা। আমি দামাদামি করে ১৪৫০ টাকা করে ৫ টা নিলাম। ৫ টায় ৬ কেজির মতো হয়েছে। তবে তাজা মাছ পেয়েছি এটাই লাভ। শরিফ উদ্দিনের মতো ছুটির দিনে বৃষ্টি ভেজা সকালে ছাতা মাথায় বাজারে ঘুরে ঘুরে মাছের দাম যাছাই করছেন অনেকই। কেউ কিনছেন আবার কেউ দাম নিয়ে যাচাই বাছাই করছেন। 

নাবা/রাজু/এনএম

রিলেটেড নিউজঃ

    মতামত দিন