ট্রেনের বগিতে লাশ, বাঁধনের আত্মসমর্পণ

ট্রেনের বগিতে লাশ, বাঁধনের আত্মসমর্পণ

ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনে একটি পরিত্যক্ত রেলের বগিতে পঞ্চগড়ের  মাদরাসাছাত্রী আসমা খাতুনকে (১৭)  ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে পঞ্চগড়।

বিচারের দাবিতে আজ শুক্রবার সকালে ঢাকা-বাংলাবান্ধা মহাসড়কের  শের-ই-বাংলা পার্ক মোড়ে ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধন করেছে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার রাতে এই মামলার প্রধান আসামি ফারুফ হাসান বাঁধনকে আটকের দাবি করেছে পুলিশ। বাঁধনের পরিবারের দাবি বাধন সদর থানায় আত্মসমর্পণ করেছে। তবে বাঁধনকে কোথা থেকে আটক করা হয়েছে তা জানায়নি পুলিশ । 

মানববন্ধনে জেলার বিভিন রাজনৈতিক, সামাজিক , সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা কর্মী সহ জেলার নানা শ্রেণী পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করে। বাঁচাও পঞ্চগড় নামের একটি সামাজিক সংগঠন এই মানববন্ধনের আয়োজন করে।

পঞ্চগড় প্রেসক্লাবের সভাপতি সফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম শহীদ, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আব্বাস আলী, জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক আবু সালেক,  জেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক মির্জা নাজমুল ইসলাম কাজল,নাগরিক কমিটির সভাপতি এরশাদ হোসেন সরকার, সমাজ কর্মী আনোয়ারুল ইসলাম খায়ের, জেলা পরিষদ সদস্য ও নারী নেত্রী আকতারুন নাহার সাকী সহ আসমার বাবা ও চাচা বক্তব্য রাখেন।

এসময় বক্তারা বলেন শুুধু প্রধান আসামি নয় এই ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে দ্রুত গ্রেফতার করে বিচার করা হোক।  

এ বিষয়ে পঞ্চগড় সদর থানার ওসি আবু আক্কাস আহম্মদ জানান, যেহেতু রেলওয়ে পুলিশের আন্ডারে ঘটনা তাই আটক বাঁধনকে রেলওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।


নাবা/ডেস্ক/হাফিজ

    মতামত দিন