ক্ষতিকর মশার কয়েল ও স্বাস্থ্যের ওপর এর প্রভাব সম্পর্কে কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেডের উদ্যোগ

ক্ষতিকর মশার কয়েল ও স্বাস্থ্যের ওপর এর প্রভাব সম্পর্কে কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেডের উদ্যোগ
বছরের এই সময়ে জনজীবনে মশার উপদ্রব বিকট আকার ধারণ করে। বাড়ছে ডেঙ্গু, চিকনগুনিয়া, ম্যালেরিয়ার মতো মারাত্মক সকল মশাবাহিত রোগের প্রকোপ। মশার উপদ্রব কমাতে নানা উপায় অবলম্বন করা হলেও সবচেয়ে সহজ ও কার্যকরী উপায় হিসেবে ব্যবহার করা হয় মশার কয়েল। বাজারে বিভিন্ন অননুমোদিত কোম্পানির কয়েল রয়েছে, যাতে কয়েলের কার্যকারিতা বাড়ানোর জন্য ডিডিটি, এনড্রিন-সহ বিভিন্ন রাসায়নিক উপাদান ব্যবহৃত হয়। এর ফলে নিজের অজান্তেই আমরা শিকার হই মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকির।তাই আমাদের
সকলের উচিৎ ক্ষতিকর মশার কয়েল চেনা, ক্ষতিকর মশার কয়েলের প্রভাব সম্পর্কে জানা এবং মানসম্পন্ন কয়েল ক্রয় করা।

এরই প্রেক্ষিতে ‘আপনি কি নিশ্চিত, আপনি নিরাপদ?’ শ্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে গতকাল শুক্রবার একযোগে ঢাকার তিনটি বাজার- কৃষি বাজার, মিরপুর ৬ নং কাঁচা বাজার ও বালুরঘাট বাজার- সংলগ্ন রাস্তাতে ‘কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেড’-এর উদ্যোগে একটি জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়।

এই কার্যক্রমের আওতায় ছিল একদিনব্যাপী রোডশো, যেখানে বাউল গান পরিবেশন ও অন্যান্য কর্মসূচীর মাধ্যমে ক্ষতিকর মশার কয়েল চেনার উপায়, মানব স্বাস্থ্যের উপর ক্ষতিকর মশার কয়েলের প্রভাব এবং নিরাপদ কয়েল ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সকলকে অবহিত করা হয়।

এই কর্মসূচীতে কাজী এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেডের সিনিয়র ব্র্যান্ড ম্যানেজার জনাব মো. ইশতিয়াক নাহিদসহ প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় ঈগল মশার কয়েল-এর নিজস্ব প্রতিনিধি দল ক্ষতিকর মশার কয়েল চেনার উপায়, মানব স্বাস্থ্যের উপর ক্ষতিকর মশার কয়েলের প্রভাব এবং নিরাপদ কয়েল ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সকলকে অবহিত করেন এবং নিজ এলাকা পরিচ্ছন্ন রেখে মশার প্রকোপ রুখতে সকলকে এগিয়ে আশার আহবান জানান। সর্বস্তরের জনগন উক্ত কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানায়।

নাবা/ডেস্ক/ওমর

    মতামত দিন