‘৯৯৯’ এ ফোন : নির্যাতিতা গৃহবধূ উদ্ধার

চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী’কে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে স্বামী মামুন সর্দার (৩২) কে আটক করেছে হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ।

জাতীয় জরুরি ৯৯৯ নম্বর থেকে ফোন পেয়ে আহত স্ত্রী কামরুন নাহার (২১) কে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয় এবং স্বামী ও শাশুড়িকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) একেএম হাসান মাহমুদসহ সঙ্গীয় ফোর্স।

এ ঘটনায় কামরুন নাহার নিজে বাদি হয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে নারি ও শিশু নির্যাতন আইনে স্বামী মামুন সর্দারকে একমাত্র আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামুন সর্দার উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম মাতৈন গ্রামের সর্দার বাড়ির দুলাল সর্দারের ছেলে। কামরুন নাহার মামুন সর্দারের স্ত্রী এবং উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের ডাঃ আশরাফুল এর মেয়ে।

মামলার বাদি কামরুন নাহার জানান, বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায়, দিবাগত রাতে তাকে বেশ কয়েকবার মারধর করা হয় এবং এ দিন গভীর রাতে তাকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যাচেষ্টা করেন মামুন।

স্ত্রী হত্যাচেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করে থানা হেফাজতে থাকা মামুন সর্দার জানান, পারিবারিক কলহের জেরে কামরুন নাহার তাকে এবং তার মা, বোনকে উল্লেখ করে অকথ্য ও অশালীন ভাষায় গালমন্দ করতে থাকেন। যার ফলে কামরুন নাহারকে কয়েকটি চড় থাপ্পড় মারেন তিনি।

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন রনি জানান, আমরা আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

নাবা/ডেস্ক/ওমর