৩০ ডিসেম্বর হবে গণতন্ত্র রক্ষার চূড়ান্ত দিন: মানিক

চাঁদপুর পৌরসভার ৯নং ও ১২ নং ওয়ার্ডের পথসভা ও গনসংযোগে শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট। নাগরিক বার্তা.কম
চাঁদপুর: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে চাঁদপুর-৩ নির্বাচনী আসন থেকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনিত প্রার্থী শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক নির্বাচনী গণসংযোগ, পথসভা ও উঠোন বৈঠক অব্যাহত রেখেছেন।

রোববার (২৩ ডিসেম্বর) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত তিনি চাঁদপুর শহরের পৌর ৯নং ও ১২নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক গণসংযোগ ও পথসভা করেছেন। এর মধ্যে সকালে শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের জন্মস্থান ৯নং ওয়ার্ডের সিংহ পাড়া থেকে গনসংযোগ শুরু করে। পরে মমিন পাড়া এলাকার বেপারী বাড়ি, ভূঁইয়া বাড়ি, সর্দার খান বাড়ি, মুন্সি বাড়ি, মিজি বাড়ি, চিত্রলেখা রোড, প্রফেসার পাড়া এলাকার রহিম খানের কলোনী, মোল্লা বাড়ি, শেখ বাড়ি, ঢালী বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে গনসংযোগ ও পথসভা শেষ করেন।

একই দিন বিকেল ৩টায় ১২নং ওয়ার্ডের নাজিরপাড়া আবুলের দোকানের সম্মূখ থেকে গনসংযোগ শুরু করেন। এসময় তিনি ওয়ার্ডের দেওয়ান বাড়ি, গাজী বাড়ি, মাদ্রাসা রোড, নাজির পাড়া, তালতলা এলাকার একাংশ, স্টেডিয়াম রোড, মিশন রোড, রাম কৃষ্ণ আশ্রম রোড, ছৈয়াল বাড়ি, হাজী মহসীন রোড, কলেজ রোড, বিপনীবাগ বাজারসহ বিভিন্ন অলি গলিতে গনসংযোগ ও পথসভা করেন।

শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক পৌর ৯নং ও ১২নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে দলের নেতাকর্মী-সমর্থক ও সর্বসাধারণ ভোটারের সাথে কুশল বিনিময় করে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট চেয়ে দোয়া কামনা করেন। প্রতিটি পথসভা ও উঠোন বৈঠকে হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থকদের উপস্থিত হতে দেখা গেছে। পথসভা ও গনসংযোগকালে চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও বিএনপি কেন্দ্রিয় নির্বাহী কমিটির প্রবাসী কল্যান বিষয়ক সম্পাদক ও সদর-হাইমচর -৩ আসনের সংসদ সদস্য প্রাথী শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক বলেন, তরুন সমাজের দায়িত্ব অনেক। তরুনরাই নির্বাচনের দিন সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত তাদের নিজ নিজ এলাকার ভোট কেন্দ্র পাহাড়া দিবে। ব্যালটের মাধ্যমে এ দেশের জনগন ৩০ ডিসেম্বর তাদের রায় দিবে। তাহলেই আমাদের নেত্রী আমাদের মা মুক্তি পাবে।

তিনি তার পথসভায় আরো বলেন, বাংলার জনগণ এবার ঐক্যবদ্ধ। তারা ৩০ ডিসেম্বরের প্রহর গুণছে। এই ৩০ ডিসেম্বর হবে গণতন্ত্র রক্ষার চূড়ান্ত দিন। এইদিন ভোটের মাধ্যমে দেশের জনগণ অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকারের সকল দুঃসাশনের জবাব দিবে। আর ভোট ডাকাতি করেও পার পাওয়া যাবে না। কারণ দেশের জনগণ এবার ভোট ডাকাতি ঠেকাতে কেন্দ্র পাহারা দিবে। তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আওয়ামী লীগ ভোট কারচুপির নানা চেষ্টা করে যাচ্ছে। জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে বিএনপির প্রতিটা নেতাকর্মীকে কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে।

পথসভায় ও গনসংযোগকালে উপস্থিত ছিলেন পৌর বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন মাঝি, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হারুনুর রশীদ, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জহির উদ্দিন বাবর, জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি শাহাজালাল মিশন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক অ্যাড. জাহাঙ্গীর খান, সদস্য সচিব হযরত আলী ঢালী, জেলা যুবদলের সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন চান্দু, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন খান আকাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ বাহারসহ পৌর ৯নং ও ১২নং ওয়ার্ড বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলসহ অঙ্গ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
এমএমএ/