১১ ফার্মেসিকে ১৮ লাখ টাকা জরিমানা

নকল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ঠেকাতে

নাগরিক বার্তা ডেস্ক: নকল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ঠেকাতে রাজধানীতে অভিযান শুরু করেছে র‌্যাব। সংস্থাটি মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকালে রাজধানীর কলেজগেট এলাকায় অভিযান শুরু করে। অভিযানে ১১টি ফার্মেসিকে ১৮ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। শেষ খবর পর্যন্ত অভিযান চলছিল।

অভিযান চলাকালে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম  বলেন, ফার্মেসিগুলোতে মেয়াদোত্তীর্ণ বিপুল পরিমাণ ওষুধ পাওয়া গেছে। এছাড়া বেশ কিছু ওষুধ পাওয়া গেছে যার মেয়াদ আগেই শেষ হয়ে গিয়েছিল, আবার কিছু ওষুধ নতুন করে মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, তবে ভয়ঙ্কর ব্যাপার হলো অপারেশনের কাজে ব্যবহৃত ব্লেড এবং সুতার মেয়াদ অনেক আগে শেষ হয়ে গিয়েছে। সেগুলো বিক্রি করা হচ্ছিল। এগুলো দিয়ে অপারেশন করলে রোগীর শরীরে ইনফেকশনসহ নানা রোগ দেখা দিতে পারে।

চোরাই পথে ভারত থেকে আসা ওষুধ ও সরঞ্জামের সন্ধান পায় র‌্যাব। এ প্রসঙ্গে ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, ওপারে একটি সিন্ডিকেট দেশের বাজারে রাজস্থানের সরকারি ওষুধ ও অপারেশনের সুতা এদেশে আনত। এগুলো কম মূল্যে এনে বেশি দামে বিক্রি করা হতো।

র‌্যাবের অভিযানে ঢাকা ফার্মেসিকে দুই লাখ টাকা, প্রতীক ফার্মাকে ৭৫ হাজার টাকা, বাংলাদেশ মেডিকেলকে ৭৫ হাজার, সেবা মেডিকেলকে এক লাখ, মেডিকার্যকে দেড় লাখ, মডার্ন ফার্মেসিকে দুই লাখ, নিউ সিটি ফার্মেসি ৪ লাখ (দুজনকে এক বছর করে জেল, একজনকে একমাস), জসিম সার্জিক্যাল অ্যান্ড ফার্মেসিকে ২৫ হাজার, আল মদিনা ফার্মেসিকে দুই লাখ, মেডিসিন কর্নারকে দুই লাখ, মেডিসাইনকে দুই লাখ টাকা এবং এক বছরের জেল দেওয়া হয়েছে।

র‌্যাব-২ এর এএসপি মোহাম্মদ শাহীনুর ইসলাম শাহীন  বলেন, ড্রাগ রেজিস্ট্রারবিহীন কিছু ওষুধ অভিযানে পাওয়া গেছে। এছাড়া ফুড সাপলিমেন্ট জাতীয় কিছু ওষুধ রয়েছে।

র‌্যাব জানায়, ওষুধে ভেজাল ঠেকাতে তাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এমএমএ/