সাংবাদিক মাকসুদের বড় ভাই’র স্ত্রীর ইন্তেকাল

চাঁদপুর: চাঁদপুরের বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী হাজী শাহ মোঃ আলমগীরের স্ত্রী সুলতানা আলমগীর (শিল্পী) মস্তিস্কে রক্তক্ষরণ জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে গত মঙ্গলবার বিকেল ৩ টা ১০ মিনিটে ঢাকার বারডেম হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৪২ বছর। তিনি স্বামী, দুই মেয়ে ও এক ছেলেসহ আত্মীয়-স্বজন ও বহু শুভাকাংখি রেখে গেছেন। তার ছোট মেয়ে শাহজাদী আজরিন আক্তার এবার কুমিল্লা মাধ্রমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে চাঁদপুর সরকারি মাতৃপীঠ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। বড় মেয়ে শাহজাদী আসমা আক্তার বিবাহিতা ও একমাত্র ছেলে শাহ মোঃ হাছান কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ঢাকায় পড়াশোনা করে।
গত বুধবার সকাল ন’টায় শহরের তালতলা পাটওয়ারী বাড়ি জামে মসজিদে জানাযার নামাজ শেষে তাঁকে পারিবারিক গোরস্থানে সমাহিত হয়। জানাযায় অন্যান্যের মধ্যে চাঁদপুর জেলা আ’লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র নাছিরউদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। ওই মসজিদের খতিব ও জেলা প্রশিক্ষিত ইমাম সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ হযরত মাওলানা আঃ সালাম নামাজে ইমামতি করেন। মরহুমা সুলতানা আলমগীর তার এলকায় একজন পরোপকারী ও দানশীল মহিলা হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তার অকাল মৃত্যুতে পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।
উল্লেখ্য, মরহুমা সুলতানা আলমগীর চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, দৈনিক সংবাদ পত্রিকার চাঁদপুরস্থ স্টাফ রিপোর্টার ও যমুনা টেলিভিশনের চাঁদপুর প্রতিনিধি শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলমের বড় ভাই’র স্ত্রী।
নাবা/এমএমএ/