সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একসাথে সরকারিকরণ দাবি

নাগরিক বার্তা নিউজ:  সব এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একসাথে সরকারিকরণসহ ৫ দফা দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ পত্র দিয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি।

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এটি পাঠানো হয়েছে বলে নাগরিক বার্তাকে জানিয়েছেন এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিয়াজো ফোরামের মুখপাত্র মো.নজরুল ইসলাম রনি।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে দেয়া অনুরোধ পত্রে বলা হয়, বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ডের বর্তমান শিক্ষক কর্মচারীদের বেতন ৬ শতাংশ কর্তন করা হচ্ছে। এতে শিক্ষক সমাজকে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে অতিরিক্ত ৪ শতাংশ গেজেট অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।

২৫ শতাংশের পরিবর্তে সরকারি নিয়মে পূর্ণাঙ্গ ঈদ বোনাস, বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী চাকরির বয়স ৬৫ বছর এবং কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ডে শিক্ষক হয়রানি বন্ধে সৎ ও যোগ্য লোক নিয়োগ দিতে হবে।

এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নিজস্ব আয় রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ফেরত নিয়ে সব এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একসাথে সরকারিকরণে আগামী বাজেটে বিবেচনার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করা হয়। প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধপত্র দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিয়াঁজো ফোরামের মুখপাত্র মো. নজরুল ইসলাম রনি, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির মহাসচিব মো. আবুল হোসেন মিলন, সহ সভাপতি মো. এনামুল হক, যুগ্ম মহাসচিব কোহিনুর কেয়া ও সাংগঠনিক সচিব মো. মেজবাহুল ইসলাম প্রিন্স প্রমুখ।

এমএমএ?