সংবিধান লঙ্ঘনকারীদের কারণে দেশ বারবার পিছিয়ে গেছে: প্রধানমন্ত্রী

নাগরিক বার্তা ডেস্ক:  বাংলাদেশের উন্নয়ন অভিযাত্রায় বারবার ছেদ পড়ার পেছনে সংবিধান লংঘনকারীদের দায়ী করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেছেন, অতীতে সংবিধান লঙ্ঘনকারীদের কারণে দেশ বারবার পিছিয়ে গেছে। তারা ক্ষমতায় এসে সম্পদের পাহাড় গড়েছে।

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে এসে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংবিধান লংঘনকারীরা ক্ষমতায় এসে দেশের উন্নয়ন বাদ দিয়ে নিজেদের উন্নয়ন নিয়ে ব্যস্ত ছিল। জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ না করে, তারা নিজেদের ভাগ্য বদল করেছে। দীর্ঘদিন পর আওয়ামী লীগ সরকারে এসে জনগণের জন্য কাজ শুরু করে। উন্নয়নের জন্য যথাযথ পরিকল্পনা হাতে নেয়। আর সেগুলোর বাস্তবায়নের কারণেই দেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল।

দেশের উন্নয়নে মন্ত্রণালয়ের কর্তাদের আরও বেশি শ্রম দেয়ার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মন্ত্রণালয়ের সব কাজ পরিকল্পিতভাবে করতে হবে। এজন্য কর্মকর্তাদের বিভিন্ন নির্দেশনাও দেন তিনি। সরকারি কর্মকর্তাদের নিষ্ঠা, সততা ও আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী ।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে উপজেলা ভিত্তিক মাস্টার প্ল্যান তৈরির নির্দেশনা দিয়ে তা দ্রুত বাস্তবায়ন করারও তাগিদ দেন সরকার প্রধান।পাশাপাশি সুপেয় পানির নিশ্চয়তা,স্যানিটেশন,রাস্তার উন্নয়ন,জনস্বাস্থ্য নিশ্চিত করার ওপর জোর দেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় থাকায় বাংলাদেশ এখন স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের আরও বেশি বেশি শ্রম দেওয়ারও তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে সকাল সোয়া ১০টার দিকে প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে এলে মন্ত্রী তাজুল ইসলামসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাকে স্বাগত জানান।

টানা তিনবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর বিভিন্ন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনের সিদ্ধান্ত নেন শেখ হাসিনা। ইতিমধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় পরিদর্শন করেছেন তিনি।

এমএমএ/