শিক্ষার্থীদের কল্যাণে কাজ করতেই আমি জিএস প্রার্থী হয়েছি: গোলাম রাব্বানী

আর মাত্র তিনদিন পর ভাঙতে যাচ্ছে ২৮ বছরের অচলায়তন। হলে হলে ভোটগ্রহণ কেন্দ্র নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে প্রশাসন। প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। শিক্ষার্থীদের অধিকার রক্ষায় দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্য নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন ডাকসু সাধারণ সম্পাদক (জিএস) প্রার্থী গোলাম রাব্বানী।

আগামী (১১ মার্চ) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে ‘সম্মিলিত শিক্ষার্থী সংসদ’ ব্যানারে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী লড়ছেন জিএস পদে। শিক্ষা, শান্তি, প্রগতির স্লোগানের পাশাপাশি গোলাম রাব্বানীর প্রচারে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সম্প্রীতির কথাও থাকছে।

নির্বাচনের দুদিন আগে তিনি বলেন, লেখাপড়ার পাশাপাশি দেশ ও জাতির কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত করার জন্য আমি ছাত্র রাজনীতিতে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে। আমি ডাকসুর জিএস নির্বাচিত হলে একটি সুন্দর পারিপার্শ্বিক পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাই যেখানে শিক্ষার্থীদের কোন প্রতিবন্ধকতা থাকবে না।

শিক্ষার্থীদের কল্যাণে কাজ করতেই আমি জিএস প্রার্থী হয়েছি জানিয়ে গোলাম রাব্বানী বলেন, শিক্ষার্থীদের যে কোনো আন্দোলনে আমার পূর্ণ সমর্থন সবসময় ছিল। আমি শিক্ষার্থীদের পাশে আছি, থাকবো। শিক্ষার্থীদের কল্যাণকর কাজ করতেই আমি ছাত্র রাজনীতিতে। সকল ধরনের কল্যাণকর কাজে সবার আগে আমি আছি, থাকবো। সবাই মিলে একসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে সাজাতে চাইছেন বলেও জানান গোলাম রাব্বানী।

নাবা/নিউজ ডেস্ক/তা.আ