শিক্ষক নিয়োগে নারীদের যোগ্যতা স্নাতক পাস

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে নারীদের এখন স্নাতক পাস হতে হবে ।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা, ২০১৯ জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এর আগে উচ্চ মাধ্যমিক সনদ দিয়েই নারীরা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হতে পারতেন।

সংশোধিত বিধিমালায় প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক পদে আবেদনের বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ২১ থেকে ৩০ বছর। আগের বিধিমালা অনুযায়ী প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগের জন্য ২৫ থেকে ৩৫ বছর এবং সহকারী শিক্ষক পদের জন্য ১৮ থেকে ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত আবেদন করার বিধান ছিলো।

৩ মার্চ  স্বাক্ষরিত এই বিধিমালা মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) প্রকাশ হয়েছে।

সংশোধিত বিধিমালা অনুযায়ী, কাউকে কোনও পদে অ্যাডহক ভিত্তিতে আগে নিয়োগ দেওয়া হলে এবং ওই পদে তিনি অব্যাহতভাবে নিযুক্ত থাকলে তার জন্য প্রযোজ্য সর্বোচ্চ বয়সসীমা শিথিলযোগ্য।

বর্তমানে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা ১১তম গ্রেডে এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের ১৪তম গ্রেডে বেতন দেওয়া হয়।

২০১৪ সালের ৯ মার্চ প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষকের পদ তৃতীয় শ্রেণি থেকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করা হয়। সেসময় থেকে থেকে প্রধান শিক্ষকের ৩৫ শতাংশ পদে সরাসরি নিয়োগ দেওয়া হয় সরকারি কর্ম কমিশনের মাধ্যমে।

নাবা/ডেস্ক/ওমর ফারুক