রবিবার বিদ্যা ও সঙ্গীতের দেবী সরস্বতীর পূজা

ছবি: নাগরিক বার্তা.কম

চাঁদপুর: রবিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সনাতন হিন্দু ধর্মালম্বীদের বিদ্যা ও সঙ্গীতের দেবী সরস্বতীর পূজা। সরস্বতী পূজা একটি অন্যতম প্রধান হিন্দু উৎসব। শাস্ত্রীয় বিধান অনুসারে মাঘ মাসের শুক্লা পঞ্চমী তিথিতে সরস্বতী পূজা আয়োজিত হয়। তিথিটি শ্রীপঞ্চমী বা বসন্ত পঞ্চমী নামেও পরিচিত।

পূজার শ্রীপঞ্চমীর ১০ ফেব্রুয়ারি রোববার অতি প্রত্যুষে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ছাত্রছাত্রীদের গৃহ ও সর্বজনীন পূজামন্ডপে দেবী সরস্বতীর পূজা হয়ে আসছে। ধর্মপ্রাণ হিন্দু পরিবারে এই দিন শিশুদের হাতেখড়ি ব্রাহ্মণভোজন ও পিতৃতর্পণের প্রথাও প্রচলিত। পূজার দিন সন্ধ্যায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সর্বজনীন পূজামন্ডপগুলিতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও আয়োজন করা হয়ে থাকে। পূজার পরের দিনটি শীতলষষ্ঠী নামে পরিচিত। পূজাকে ঘিরে বিদ্যার্থীরা বেশ কয়েকদিন নিঘূম রাত কাটিয়ে আসছে।

চাঁদপুরের বিভিন্ন মন্দির ছাড়াও অস্যংখ মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিশেষ করে চাঁদপুর জেলা শহরে পূজার আড়ম্বর চোখে পড়বার মতো। পূজার পরদিন বিকেলে সকল মন্ডপের প্রতীমা শহরের হাসান আলী স্কুল মাঠে একত্রিত হবে। সেখান থেকে হাজারো ভক্তের ও বিদ্যার্থীদের সমন্বয়ে বের হবে শোভাযাত্রা।

পূজাকে সুন্দর ও সম্প্রীতিপূর্ন করতে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগ ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করেছে। প্রশাসনের সাথে সার্বক্ষনিক সমন্বর করছে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ।

এবছর জেলা শহরের শ্রীশ্রী রাম কৃষ্ণ আশ্রম, শ্রীশ্রী গোপাল জিউড় আখড়া, শ্রীশ্রী কালী বাড়ি মন্দির, গোয়াখোলা কুন্ডের বাড়ি মন্দির, মির্নাভা পূজা মন্ডপ, কদমতলা গুহ বাড়ির মন্দির, লেকের পাড়ে মজুমদার বাড়ির দুর্গা মন্ডপ, ঘোষ পাড়া দুর্গা মন্ডপ, পুরান বাজার হরিসভা দুর্গা মন্ডপ, নতুন বাজারের পালপাড়ার শীতলা মায়ের মন্দির, প্রতাপ সাহা রোডে দুর্গা মন্দির, লোকনাথ বাবার মন্দির, গাঙ্গুলী পাড়ার পূজা মন্ডপ, প্রতাপ সাহা রোডের মাতৃ সংঘ, পুরান বাজারের নিতাইগঞ্জ পূজা মন্ডপসহ চাঁদপুরের আটটি উপজেলায় কয়েকশত মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে।
এমএমএ/