ম্যাজিস্ট্রেট সেজে প্রতারণা

ম্যাজিস্ট্রেট সেজে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অর্থ দাবীর অভিযোগে মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়া নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আজ বেলা ৩টায় গুলশান এভিনিউর একটি রেস্টুরেন্ট থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমন তথ্য পাওয়া যায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার পরিচয় দিয়ে মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভুইয়া একটি রেস্টুরেন্ট থেকে ১০ হাজার টাকা দাবী করেন।

রেস্টুরেন্ট ম্যানেজারের সন্দেহ হলে তিনি কৌশলে মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়াকে আটকে রেখে ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারকে খবরটি জানান।

সঙ্গে সঙ্গে সাজিদ আনোয়ারের ভ্রাম্যমাণ আদালত ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্ত মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়াকে গ্রেফতার করেন।

পরে ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট তার প্রতারণা স্বীকার করেন। তিনি জানান প্রায় এক বছর ধরে ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট সেজে প্রতারণা করে আসছিলেন।

এসময় প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ২টি দামী স্মার্ট ফোন ও একটি মানিব্যাগে ১১ হাজার টাকা জব্দ করা হয়।

ভূয়া পরিচয় ও প্রতারণা করার অপরাধে ১৭১ ধারা মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়াকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

নাবা/ডেস্ক/ ওমর