মোকাব্বির খানকে শোকজ করছে গণফোরাম

দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করায় গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খানকে শোকজ নোটিশ দিয়েছে গণফোরাম।

আজ শনিবার দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শীর্ষ নেতাদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। দলটির প্রশিক্ষণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পথিক এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট ডাকাতি ও নানা অনিয়মের প্রতিবাদে নির্বাচন বর্জন করে গণফোরাম। সেই সঙ্গে নির্বাচিত এমপিরা সংসদে শপথ না নেয়ারও সিদ্ধান্ত নেয়।

কিন্তু দলের এই সিদ্ধান্তকে অমান্য করে এমপি হিসেবে শপথ গ্রহণ করায় মোকাব্বির খানের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে দলটি।

সভায় গণফোরামের গঠনতন্ত্রের ৮ (ম) ধারা মোতাবেক দলের লক্ষ্য, আদর্শ, নীতি, গঠনতন্ত্র, কর্মসূচি পরিপন্থী কাজের জন্য মোকাব্বির খানকে কারণ দর্শানো নোটিশ পাঠানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভায় গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মিন্টু তার সংসদে যাওয়ার বিষয়ে একটি রিপোর্ট উত্থাপন করেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন মফিজুল ইসলাম খান কামাল, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, অধ্যাপক আবু সাইয়িদ, রেজা বিকরিয়া, মেজর জেনারেল অব. আ ম সা আ আমীন, অ্যাডভোকেট এস এম আলতাফ হোসেন, অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার আফ্রিক, অ্যাডভোকেট মোহসীন রশীদ, ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল হক, অ্যাডভোকেট সগীর আনোয়ার, মোশতাক আহমেদ প্রমুখ।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট আট আসনে জয়ী হয়। এর মধ্যে গণফোরাম দুটি আসন পায়। এরমধ্যে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে সুলতান মনসুর এবং গণফোরামের নিজস্ব প্রতীক উদীয়মান সূর্য নিয়ে মোকাব্বির খান নির্বাচিত হন।গত ২ এপ্রিল দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে মোকাব্বির শপথ গ্রহণ করেন। এর আগে সুলতান মনসুরও দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে সংসদে যান।

 

নাবা/ডেস্ক/হাফিজ