ভক্ত ও দল, দুই পক্ষের খোরাক মেটাতে জ্বলে উঠতে প্রত্যয়ী গেইল

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্রিস গেইলের ঘুম ভাঙবে কখন? ওয়েস্ট ইন্ডিজের দানবীয় ব্যাটসম্যানের স্বরূপ ছক্কা আর চার দেখার অপেক্ষায় থাকা ভক্তদের কেবল একই প্রশ্ন! দল রংপুর রাইডার্সেরও পাওনা হয়ে গেছে একটা বড় ইনিংস। গেইল নিজে কী ভাবছেন?

সবাইকে আশ্বস্ত করে গেইল বললেন, সবার চাওয়া তার কানে পৌঁছেছে! দলের চাহিদাও মাথায় আছে। দুই পক্ষের খোরাক মেটাতে জ্বলে উঠতে প্রত্যয়ী তিনি!

মঙ্গলবার (০৫ ফেব্রয়ারি) দুপুরে ম্যাপল লিফ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ও প্রত্যয় মেডিকেল ক্লিনিক লিমিটেডের আয়োজনে ‘মাদককে না বলুন’ শীর্ষক এক সেমিনারে অংশ নেয় বিপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্স। উপস্থিত ছিলেন রংপুর রাইডার্সের কোচ টম মুডি, ওপেনার ক্রিস গেইল ও দলের ইংলিশ রিক্রুট বেনি হাওয়েল।

ঢেঁকি স্বর্গে গেলেও ধান ভাণে! ক্রিকেটার, তাই মাদক বিরোধী সেমিনারেও শেষ পর্যন্ত ক্রিকেটের প্রসঙ্গই আসল। তাতে থাকল চলতি বিপিএল নিয়ে নানা প্রসঙ্গ। থাকল ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার নিয়ে কথাও।

বিপিএলের চলতি আসরে ১১ ম্যাচে গেইল করেছেন কেবল ১৮৮ রান। অথচ গত আসরে ১১ ম্যাচে দুই সেঞ্চুরি ও দুই ফিফটিতে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ৪৮৫ রান সংগ্রাহক হয়েছিলেন রংপুরের এ ব্যাটসম্যান। স্ট্রাইকরেট ছিল ১৭৬.৩৬। ফাইনালে উঠতে পারলে এখনও পাবেন দুটি ম্যাচ, নইলে ঢাকার বিপক্ষে ম্যাচটিই হবে শেষ। ফাইনালে উঠতে হলেও গত আসরের গেইলকে ভীষণ প্রয়োজন রংপুরের।

প্রশ্নটা শুনে মৃদু হাসলেন গেইল। বললেন, ‘এখন পর্যন্ত সবকিছু তো ভালোই চলছে। আমার কাছে দলের একটা ইনিংস পাওনা হয়ে আছে। আমার কাছে সবকিছু ঠিকই লাগছে। দলের সঙ্গে ব্যক্তিগত অর্জনের দিকেও লক্ষ্য রাখাটা অবশ্যই জরুরী। সেদিক বিবেচনা করলে এখন পর্যন্ত সেরাটা দিতে পারিনি। গত বছর এই সময়টাতে আমি সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলাম। তবে উত্থান-পতন থাকবেই। অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা প্রয়োজনীয় সময়ে জ্বলে ওঠে।’

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের কাছে প্রথম কোয়ালিফায়ারে হেরে পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে রংপুরের। দলটির কোচ টম মুডিও বললেন ঢাকার বিপক্ষে আগামীকাল দ্বিতীয় সুযোগে ঠিকই ঘুরে দাঁড়াবে তার দল, ‘আমাদের যেটা করতে হবে তা হল, সেরাটা খেলা। আমরা চাপ নিচ্ছি না, তাই ভালো খেলাই স্বাভাবিক। আমরা গতকাল হেরেছি। সুতরাং আমাদের এই ম্যাচে ভালো খেলাটা জরুরী।’

‘আমরা ঢাকা ম্যাচটা নিয়ে ইতিবাচকভাবেই চিন্তা করছি। তারা যথেষ্ট শক্তিশালী দল সেটা আমরা জানি। আমাদের প্রতিজ্ঞাবদ্ধ থাকতে হবে। ফাইনালে উঠতে হলে লম্বা একটা পথ পাড়ি দিতে হবে। তারপরেই না আসবে সাফল্য।’

তা.আ/