বড় ক্ষতিটা বাংলাদেশেরই হলো!

টানা দুই ম্যাচ হারার পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় দিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন ছিলো টাইগারদের চোখে। কিন্তু তা আর হলো না। বাংলাদেশের সেই স্বপ্নে ঘি ঢেলে দিল ব্রিস্টলের ছলনাময়ী বৃষ্টি। ম্যাচ তো দূরে থাক, বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচে টসই হতে দিলো না ভেন্যুটির মেঘলা আকাশ।

ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ায় পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হলো দুই দলকে। অর্থাৎ বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা দুই দলই পেয়েছে ১ পয়েন্ট করে। তাতে ক্ষতিটা হলো বাংলাদেশেরই। চার ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে সাতেই থেকে গেল বাংলাদেশ। অন্যদিকে লাভের পাল্লাটা ভারী হলো লঙ্কানদের। সমান ম্যাচে চার পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচে উঠে গেল শ্রীলঙ্কা। এরআগে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচেও এক পয়েন্ট পেয়েছিলো তারা। অর্থাৎ ,মাত্র একম্যাচের জয় নিয়েই তাদের অবস্থান হলো পাঁচ নম্বরে।

ম্যাচটা পরিত্যক্ত হওয়ায় সেমিফাইনালে যাওয়ার পথটা অনেকটাই কঠিন হয়ে গেল বাংলাদেশের। কেননা সেমিফাইনাল যেতে হলে অন্তত ৫টি ম্যাচ জিতে ১০ পয়েন্ট দরকার হবে বলে ধারণা করা হয়েছিলো। তারমাঝে রান রেটের হিসেব তো ছিলোই।

বাংলাদেশের হাতে এখনো বাকি পাঁচ ম্যাচ। যেখানে প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া, আফগানিস্তান, ভারত ও পাকিস্তান। কিন্তু সাত নম্বরে  থাকা বাংলাদেশের জন্য কাজটা সহজ নয়। বাকি পাঁচ ম্যাচে অন্তত চার ম্যাচে জিততেই হবে বাংলাদেশকে। তার মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের সঙ্গে এগিয়ে থাকলেও ভারত-অস্ট্রেলিয়াকে কি ঠেকাতে পারবে বাংলাদেশ? আর আবারও যদি বৃষ্টি বাগড়ায় ম্যাচ বাতিল হয় তাহলে সেই স্বপ্নও আর সত্যি হবে না। সুতরাং ম্যাচ বাতিল হওয়ায় ক্ষতিটা হয়ে গেল মাশরাফির বাংলাদেশেরই।

(নাবা/ ১১ জুন/ হিমু)