ব্যবসায়ী ফারুক গাজীর মায়ের ইন্তেকাল

চাঁদপুর শহরের ওয়াপদা খলিশাডুলি এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও চাঁদপুর জেলা রেন্টেকার সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক মো:ফারুক গাজীর মা’ ফাতেমা বেগম গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে ৪টায় শহরের প্রিমিয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন,(ইন্নানিল্লাহে—–রাজেউন)।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল(৮০) বছর। তিনি দীর্ঘ দিন যাবত বাধ্যক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। তিনি ৪ ছেলে,২ মেয়ে,নাতী,নাতনী,আত্বীয়,স্বজন ও বহুগুনগ্রাহী রেখে যান। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টায় শহরের খলিশাডুলী আল-আমিন জামে সমজিদ প্রাঙ্গনে অসংখ্য ধর্মপ্রান মুসলমানের উপস্থিতিতে জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। পরে রাতেই খলিশাডুলী গাজী বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে মরহুমা ফাতেমা বেগমকে ইসলামী শরীয়া মোতাবেক দাফন শেষে চির সমাহিত করা হয়।

জানাজা নামাজের ইমামতি করেন,চাঁদপুর জেলা কারাগার জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা কবির উদ্দিন। দাফন শেষে ধর্মপ্রান মুসলমানদের নিয়ে মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করেন,হাফেজ মাও: মো: শাহজাহান। জানাজা পূর্বে বক্তব্য রাখেন, খলিশাডুলী আল-আমিন জামে মসজিদের ইমাম মাও: ওহিদুল ইসলাম, মরহুমার ছেলে প্রবাসী মো: লিটন গাজী ও ফারুক গাজী ।

জানাজার নামাজে উপস্থিত ছিলেন,তরপুরচন্ডী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: রাসেল গাজী,আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি মোহাম্মদ শওকতআলী, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক জিএম শাহীন, জেলা কাজী সমিতির সভাপতি হাজী মাও: ফজলুল কবির পাটওয়ারী,সাধারন সম্পাদক হাফেজ মাও: আবু সুফিয়ান, মতলব সুজাতপুর ডিগ্রী করেজের সহকারী অধ্যাপক মো: আতাউল্লাহ্সহ এলাকার অসংখ্য ধর্মপ্রান মুসলমান ও গর্নমান্য ব্যাক্তিবর্গ। আগামী রোববার মরহুমা ফাতেমা বেগমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে কুলখানী অনুষ্ঠিত হবে বলে পারিবারিক ভাবে জানা গেছে।
এমএমএ/