বিশ্বকাপের আগে সুখবর দিলেন রুবেল

বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে চোট নিয়ে দুশ্চিন্তায় বেশ কয়েকটি দল। এইতো গতকালই চোটে পড়েছেন ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগান। একই দিনে প্রস্তুতি ম্যাচে চোট পেয়ে স্ট্রেচারে করে মাঠ ছেড়েছেন শ্রীলঙ্কার অভিষেক ফার্নান্ডো। শুধু ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কা নয় চোট হানা দিয়েছে ভারত শিবিরেও। ওয়ার্ম আপ ম্যাচের আগে অনুশীলনে চোট পেলেন ভারতের শিখর ধাওয়ান ও বিজয় শঙ্কর। সবমিলিয়ে বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগেই মহাচিন্তায় পড়ে গেল দলগুলো। সেইদিক দিয়ে বাংলাদেশের জন্য বড় সুখবর দিলেন পেসার রুবেল হোসেন। শুক্রবার অনুশীলন শেষে সংবাদ মাধ্যমকে জানালেন, আপাতত চোট নিয়ে কোনো দুশ্চিন্তা নেই টাইগার শিবিরে।

বেশ কয়েকমাসের ব্যবধানে বাংলাদেশ দলের একাদিক খেলোয়াড় চোটে পড়েছেন। সাকিব আল হাসান থেকে শুরু করে মাহমুদউল্লাহ, মোস্তাফিজ, সাইফউদ্দিন, মিরাজ, মুশফিক, তামিম, রুবেল মোটকথা সবারই টুকটাক চোট সমস্যা ছিল। তবে এর মধ্যে বেশি চিন্তা ছিল সহ-অধিনায়ক সাকিবকে নিয়ে। দীর্ঘ এক-দেড় বছর থেকে চোটের সঙ্গে লড়াই করছেন তিনি। নিউ জিল্যান্ড সফরে হ্যামিল্টন টেস্টের পর চোটের কারণে বোলিং করতে পারেননি মাহমুদউল্লাহও।

তবে বিশ্বকাপের আগে স্বস্তির কথা হলো আপাতত কোনো চোট সমস্যা নেই বাংলাদেশ দলে। শেষ ত্রিদেশীয় সিরিজে চোটে পড়া সাকিব এখন ভালো আছেন। বোলিং শুরু করেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। গতকাল কার্ডিফের ক্যাথেড্রাল স্কুল মাঠে চোট কাটিয়ে প্রথম বল হাতে নিয়েছেন তিনি। আপাতত কাঁধে টেপ পেঁচিয়েই হাত ঘোরাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ। সবমিলিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই আছে বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে কার্ডিফে গতকাল থেকে অনুশীলন শুরু করেছে বাংলাদেশ। নিজেদের অনুশীলন শেষে রুবেল জানালেন, ‘আমি এখন সম্পূর্ণ ফিট। লাস্ট ৪-৫টা সেশনে আমি ফুল স্পিডেই বোলিং করেছি। দলের কারোরই এখন তেমন চোটের সমস্যা নেই। যতদূর জানি, সাকিব ভাইও এখন ভালো আছে। বোলিং করছেন, ফিল্ডিং করছেন, সবকিছুই ঠিকভাবে করতে পারছেন। আমার মনে হয় না, দলে এখন কারোরই ইনজুরি সমস্যা আছে।’

আয়ারল্যান্ডের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপে পা রেখেছে মাশরাফিরা। চ্যাম্পিয়নের আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে দলের এই চনমনে চেহারা বিশ্বমঞ্চে টাইগারদের সাহায্য করবে বলে মনে করেছেন রুবেল। তাঁর কথায়, ‘সবার মধ্যে আত্মবিশ্বাস আছে। সবশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজে আমরা খুব ভালো ব্যাটিং, বোলিং করে বিশ্বকাপে পা রেখেছি। এটা আমাদের জন্য প্লাস পয়েন্ট। আশা করি সবাই ধারাবাহিকতা ধরে রাখবে। সবাই যদি নিজের ভূমিকা বোঝে, ভালো করতে পারে, আশা করি ভালো কিছুই হবে।’

ব্যাটসম্যানদের জন্য এবারের বিশ্বকাপ ব্যাটিং স্বর্গ সেটা আগে থেকেই জানা। তবে ব্যাটসম্যানদের জন্য যতটা ভালো ঠিক ততটাই চ্যালেঞ্জ বোলারদের। সেই চ্যালেঞ্জ নিয়েই ভালো করার প্রত্যয় রুবেলের মুখে। রুবেল জানালেন, আয়ারল্যান্ড আর ইংল্যান্ডে প্রায় কাছাকাছি উইকেট থাকে। এখানে অনেক রান হয়। এই ধরনের কন্ডিশনে ম্যাচ জিততে হলে পেস বোলারদের ভালো করতেই হবে। তাদের উপরই অনেক কিছু নির্ভর করে। আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। কিভাবে কম রান দেব কিংবা উইকেট বের করে দেব। এই ধরনের কন্ডিশনে নতুন বলে, মিডল ওভারে বা ডেথে কিভাবে বোলিং করতে হবে, সেটা নিয়ে পরিশ্রম করছি আমরা। আশাকরি ভালো কিছু হবে।’

(নাবা/ ২৫ মে/হিমু)