বাবর আজমের সেঞ্চুরিতে পাকিস্তানের দুর্দান্ত জয়

বল হাতে নিউজিল্যান্ডকে চেপে ধরেন শাহীন শাহ আফ্রিদি। আর ব্যাট হাতে দারুণ সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে পাকিস্তানকে দুর্দান্ত জয় এনে দেন বাবর আজম। ব্যাটে-বলের দারুণ ছন্দে নিউইদের স্রেফ উড়িয়ে দিল সরফরাজ আহমেদের দল।

বুধবার বার্মিংহামে নিউজিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারায় পাকিস্তান। আর এই জয়ের মাধ্যমে সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা বাঁচিয়ে রাখলো ১৯৯২ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। অন্যদিকে টুর্নামেন্টে প্রথম হারের স্বাদ পেল নিউজিল্যান্ড।

বার্মিংহামে পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। কিন্তু ব্যাটিংয়ে নেমে পাক বোলারদের সামনে বিপাকে কিউই ব্যাটসম্যানরা। ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৪৬ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে নিউজিল্যান্ড।

নিংসের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই উইকেট নেন আমির। অফসাইডের বলটি শরীরের বাইরে থেকে ড্রাইভ করতে গিয়ে স্ট্যা মাত্র ৫ রান করেই বোল্ড হয়ে যান গাপটিল।

সপ্তম ওভারে ওপেনার মুনরোকেও হারায় নিউজিল্যান্ড। ১২ রান করে শাহীন আফ্রিদির দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে প্রথম স্লিপে ক্যাচ দেন তিনি। নিজের পরের ওভারে আবারও আঘাত শাহীন আফ্রিদির। এবার তিনি পরাস্ত করেন কিউই ব্যাটিং স্তম্ভ রস টেলরকে (৩)। ১৩ তম ওভারেও শাহীনের চমক। টম লাথামকে মাত্র ১ রানে নিজের শিকার বানান তিনি। ৪১ রানে ফেরেন উইলিয়ামসনও। এরপর জিমি নিশাম ও কোলিন ডি গ্র্যন্ডহোমের ব্যাটে নির্ধারিত ওভারে ২৩৭ রান করে নিউজিল্যান্ড।

দারুণ বোলিংয়ে ২৮ রানে ৩ উইকেট নেন আফ্রিদি। একটি করে উইকেট নেন শাদাব ও আমির।

২৩৮ রানের লক্ষ্য ৫ বল বাকি থাকতে ছাড়িয়ে যায় পাকিস্তান। চতুর্থ উইকেটে ম্যাচ জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন হারিস সোহেল ও বাবর আজম। ১২৭ বলে ১০১ রানে অপরাজিত থেকে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন বাবর আজম।

(নাবা/ ২৭ জুন/এইচএ)