বাগেরহাটে ডাকাতি, বৃদ্ধাকে কুপিয়ে জখম

বাগেরহাট শহরতলীর মেগনিতলা সংলগ্ন কাঁঠাল গ্রামে রোববার ভোর রাতে দূর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা হামিদা বেগম (৬০) নামের এক বৃদ্ধা কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করেছে।

আহত হামিদা বেগম কাঁঠাল গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদ পাইকের স্ত্রী। তার দুই মেয়ে তাদের শশুর বাড়ীতে থাকায় তিনি একা বাড়ীতে থাকতেন। কাড়াপাড়া ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মহিদুল ইসলাম বলেন, রবিবার ভোর রাতে অজ্ঞাত ডাকাতরা এ ঘটনা ঘটায়।

দুপুর সাড়ে ১১টার দিকে আমি ইউনিয়ন পরিষদে যাওয়ার পথে আহতের ছোট মেয়ে নাসিমা বেগমের ডাক চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে যাই। বৃদ্ধা হামিদা বেগমকে ঘরের মেঝের উপর রক্তাক্ত অবস্থায় পরে থাকতে দেখি।

তার মাথায় ও কপালসহ বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরে তাকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থায় অবনতি হলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এসময় ঘরের আলমারী, শোকেস ভাঙ্গাসহ বিভিন্ন মালামাল ওলোট-পালট অবস্থায় পরে থাকতে দেখি। আহতের বড় জামাতা তাজুল ইসলাম বলেন, আমার বাড়ী কচুয়া উপজেলার ধোপাখালী গ্রামে।

খবর পেয়ে আমি ও আমার স্ত্রী কচুয়া থেকে এসে আমার শাশুড়ির সাথে স্ত্রী কামরুন নাহার ও শালীকাকে খুলনা পাঠিয়ে দিয়েছি। তারা দুই বোনই এখন খুলনাতে অবস্থায় করতে। ঘরের অলমারীসহ বিভিন্ন মালামাল ভাঙ্গা অবস্থায় পরে আছে। কি পরিমান ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা বলতে পারছি না।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাতাব উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি ডাকাতি না অন্য কিছু এই মূহুর্তে বলতে পারছি না। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

 

নাবা/ডেস্ক/হাফিজ