বাংলাদেশ-ভুটান ৪ সমঝোতা সই

বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় সফরে ভুটানের সঙ্গে ৪টি সমঝোতা স্মারক সই করেছে। শনিবার (১৩ এপ্রিল) দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কবরী হলে সমঝোতা স্মারকগুলোতে সই হয়।

সমঝোতা স্মারকে সই করেন দুই দেশের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং।

পরে এক ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক সাংবাদিকদের জানান,পুরো আলোচনার ফসল আমাদের জাতীয় সম্পর্কের ব্যাপ্তি বাড়ছে। এটা আরো উন্নত হবে।

সমঝোতা স্মারক সইয়ের আগে একান্ত বৈঠকে বসেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। এদিন বিকেলে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিংয়ের সৌজন্যে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

চারদিনের দ্বিপক্ষীয় এ সফরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পাশাপাশি পররাষ্ট্র, শিক্ষা, বাণিজ্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী। সফরে নানা বিষয়ে আলোচনার পাশাপাশি বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ উদযাপনেও অংশ নেবেন তিনি।

এর আগে শুক্রবার (১২ এপ্রিল) চারদিনের সফরে ঢাকায় আসেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং। শুক্রবার সকাল ৮টা ৮ মিনিটে ড্রুক এয়ারের একটি ফ্লাইটে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা।

বিমানবন্দরের ভিভিআইপি লাউঞ্জে লোটে শেরিংকে অভ্যর্থনা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার দেয়।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর লোটে শিং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ থেকে চিকিৎসা শাস্ত্রে ডিগ্রি নিয়েছিলেন। তবে, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এটাই তার প্রথম বাংলাদেশ সফর।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে বিদেশি কোনো প্রধানমন্ত্রীর এটিই প্রথম পহেলা বৈশাখে অংশগ্রহণ। তাই, তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানাবে সরকার। বৈশাখের উপহার হিসেবে তাকে সিল্কের পাঞ্জাবি এবং তার স্ত্রীর জন্য বেনারসি শাড়ি উপহার দেয়া হবে।
নাবা/সেন্ট্রাল ডেস্ক/কেএইচ/