ফরিদগঞ্জ-৪ আসনে ধানের প্রার্থী কোর্টে-নৌকার জোয়ার মাঠে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট। নাগরিক বার্তা.কম
চাঁদপুর: চাঁদপুর-৪ ফরিদগঞ্জ আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমান নির্বাচনী মাঠে ব্যস্ত সময় পার করছেন। অপরদিকে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবক আলহাজ এম এ হান্নানের স্থগিত হওয়া মনোনয়নপত্র বৈধ করতে কোর্টে সময় কাটাচ্ছেন।

চুড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়ার পর আ’লীগের প্রার্থী মুহম্মদ শফিকুর রহমান দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে সকাল থেকে দুপুর, বিকেল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত প্রচারনা, সাংগঠনিক সভা-সমাবেশ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। আ’লীগের কেদিীয় ও জেলা নেতৃবৃন্দ নৌকার বিজয়ের লক্ষ্যে নেতাদের বিরোধ নিরসন করে ঐক্যবদ্ধ করতে প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এরইমধ্যে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থীরা একই মঞ্চে উঠে নৌকার বিজয় নিশ্চিতে আন্তরিকভাবে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এছাড়া প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কাছ থেকে ভোটের মাধ্যমে কিভাবে বিজয় চিনিয়ে আনা যায় এনিয়ে নানা কৌশল ঠিক করছেন তারা। এছাড়া ধানের শীষের প্রার্থী এম এ হান্নানের প্রার্থীতা স্থগিত হওয়ার কারণে ফুরফুরে মেজাজে মুহম্মদ সফিকুর রহমান নির্বাচনী কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছে তার অনুসারী দলীয় নেতা-কর্মীরা। নৌকার বিজয়ের লক্ষ্যে সমগ্র উপজেলাব্যাপী বিরামহীনভাবে আ’লীগের প্রচার-প্রচারনা চলছে।

অপরদিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আলহাজ এম এ হান্নানের মনোনয়নপত্র চাঁদপু জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশন বৈধ ঘোষণা করে। কিন্তু সোনালী ব্যাংকের ঋণ খেলাপীর অভিযোগ উঠায় হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ ১৭ ডিসেম্বর তার মনোনয়নপত্র স্থগিত করে। যার ফলে এমএ হান্নান এখন নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা থেকে বিরত রয়েছেন। তবে হাইকোর্টের ওই আদেশের বিরুদ্ধে এমএ হান্নান আপিল করেছেন বলে জানা গেছে।

এম এ হান্নান ঋণ খেলাপী নয়, হয়রানির উদ্দেশ্যে এম এ হান্নানের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনা হয়েছে। তাদের বিশ^াস আপিল বিভাগে এম এ হান্নান তার প্রার্থীতার বিষয়ে ন্যায় বিচার পাবেন বলে মনে করেন নেতাকর্মীরা।
এমএমএ/