প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ৩ মাদরাসা শিক্ষকের কারাদণ্ড

নাগরিক বার্তা ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় দাখিল পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে তিন শিক্ষককে ১৫ দিন করে ও এক ফটোকপি দোকানিকে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযুক্ত শিক্ষকরা পরীক্ষা শুরুর কয়েক মিনিটের মধ্যে ফটোকপির দোকানে প্রশ্ন পাঠান।

শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা ইসলাম এ দণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার মেহারী উবাইদিয়া দাখিল মাদরাসার শিক্ষক আব্দুল কাইয়ূম (৪২), নুরুল আমিন (৪০) ও হাফিজুল ইসলাম (২৫) এবং ফটোকপি দোকান মালিক মহসিন রিফাত।

আরো পড়ুন>>  চাঁদপুরে মাদ্রাসা কেন্দ্রের সচিবকে অব্যহিত, নকলের বস্তা উদ্ধার

ইউএনও হাসিনা ইসলাম দৈনিক শিক্ষাকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ৩৩৩ নম্বরে কল পেয়ে ওই কেন্দ্রের পাশে একটি ফটোকপি দোকানে অভিযান পরিচালনা করে ইংরেজি প্রথমপত্র প্রশ্ন ও নকল পাওয়া যায়। ওই দোকান মালিক মহসিন রিফাতকে আটকের পর তিনি জানান—তিন শিক্ষক এ প্রশ্ন ও উত্তর সরবরাহ করেছেন। পরে তার দেওয়া তথ্যানুযায়ী ওই তিন শিক্ষককে আটক করে ১৫ দিনের ও দোকান মালিককে দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

পরে তাদের কসবা থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করা হয়েছে বলেও জানান নির্বাহী এ ম্যাজিস্ট্রেট।

এমএমএ/