প্রযুক্তি কৃষকের কাছে দ্রুত পৌঁছে দিতে আহবান

নাগরিক বার্তা ডেস্ক: বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) দেশের সর্ববৃহৎ বহুবিধ ফসলের গবেষণা প্রতিষ্ঠান। বারির প্রযুক্তি কৃষকের কাছে দ্রুত পৌঁছে দিতে হবে।

রবিবার (১০ ফ্রেুয়ারি) গাজীপুরের প্রধান কার্যালয়ে দুই দিনব্যাপী ‘বারি প্রযুক্তি প্রদর্শনী ২০১৯’ অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বক্তারা।

বারির মহাপরিচালক ড. আবুল কালাম আযাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষিমন্ত্রী কৃষিবিদ ড.মো. আব্দুর রাজ্জাক।

এছাড়া যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য কৃষিবিদ আব্দুল মান্নান, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নাসিরুজ্জামান বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে ছিলেন বিএআরআই’র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক (অব) ও এমেরিটাস সায়েন্টিস্ট ড. কাজী এম বদরুদ্দোজা।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সেবা ও সরবরাহ বিভাগের পরিচালক ড. মদন গোপাল সাহা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন গবেষণা পরিচালক ড. মো. আব্দুল ওহাব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘কৃষি প্রযুক্তি হাতবই ২০১৯’ এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এছাড়া প্রদর্শনী উদ্বোধনের আগে বারি ক্যাম্পাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি ম্যুরাল উদ্বোধন ও গাছের চারা রোপণ করেন কৃষিমন্ত্রী মন্ত্রী।

কৃষিমন্ত্রী কৃষিবিদ ড.মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, প্রযুক্তি আবিষ্কারের পর তা যদি মাঠ ও চাষি পর্যায়ে না যায়- তাহলে উদ্ভাবনে কোন লাভ নেই। এ দায়িত্বটি কৃষি বিজ্ঞানীদেরকেই নিতে হবে। উৎপাদিত প্রযুক্তির কতটি চাষি পর্যায়ে গিয়েছে তা দেখা উচিত। ভুট্টা এক সময় দেশের কোন ফসল ছিল না, বর্তমানে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ  ফসলে পরিণত হয়েছে। কৃষি বিজ্ঞানীদের সুনির্দিষ্ট কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। আমরা আগামী তিন বছর পর এক টন ভুট্টাও আমদানি করব না।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিন সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের কৃষক ও কৃষাণীসহ প্রায় ৪শ’ জন অংশগ্রহণ করবেন।

এমএমএ/