নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন আঃ রশিদ মজুমদার

হাজীগঞ্জ: দলের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অধ্যাপক আবদুর রশিদ মজমদার। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে এ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য তৃণমূল নেতাকর্মীদের অনুরোধকে উপেক্ষা করে নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দেননি হাজীূগঞ্জ উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আঃ রশিদ মজুমদার। নির্বাচনে অংশ গ্রহণের জন্য অবশ্য তিনি মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন। গত বৃহস্পতিবার এক প্রতিক্রিয়ায় জানালেন দুই বারের উপজেলা পরিষদ ও পৌরসভার চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আঃ রশিদ মজুমদার।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক  সভাপতি ও হাজীগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের সাবেক এ শিক্ষক ২৪ মার্চ ৫ম   উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বিষয়ে আলহাজ¦ আঃ রশিদ মজুমদার বলেন, আমি নৌকা প্রতীক পাইনি। প্রাণপ্রিয় নেত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা রেখে নৌকার বিপক্ষে নির্বাচন করা, আমার পক্ষে সম্ভব নয়। তাই মনোনয়পত্র সংগ্রহ করেও নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালাম। দীর্ঘ দিন চেয়ারে থেকে এবং দীর্ঘ কর্মযজ্ঞে আমি সবার প্রত্যাশা অনুসারে কাজ করতে পারি নাই। তার কারন আপনারা জানেন। ক্ষমতার সীমাবদ্ধতা, অসহযোগিতা, নানারূপ জটিলতা, অহেতুক-অযাচিত হস্তক্ষেপে কাঙ্খিত উন্নয়নে ব্যর্থ হয়েছি। বিদায় বেলায় আপনাদের কাছে ক্ষমা প্রার্থী। কথা দিলাম অতিতের মতো সুখে-দুখে উপজেলাবাসীর পাশে আছি এবং থাকবো। যখনি উপজেলাবাসীর যে কেউ আমাকে ডাকবেন, আমার সাধ্যমতো সাড়া দেয়ার চেষ্টা করবো, ইনশআল্লাহ।
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল এ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অধ্যাপক আবদুর রশিদ মজুমদার বিগত সময়ে দায়িত্ব পালনের নানা স্মৃতি তুলে ধরে বলেন,বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ১৯৬৯ সালে ছাত্রলীগের রাজনীতি শুরু করেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালনসহ অদ্যাবধি পর্যন্ত মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে আসছেন প্রবীন এই রাজনীতিবিদ। যাদের ভালোবাসায় দুই বার পৌরসভার চেয়ারম্যান আর দুইবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পাশ করেছেন সেই জনগন, ভোটারের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
জেলা এবং উপজেলা প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সংবাদকর্মীদের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়ে আলহাজ¦ আঃ রশিদ মজুদার বলেন, যারা এই দীর্ঘ কর্মযজ্ঞ এবং গুরু দায়িত্ব পালনে আমাকে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। দল ও মতের উর্ধ্বে উঠে যেসব রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী আমাকে সহযোগিতা করেছেন, তাদের প্রতি রইল শুভকামনা। সবার কাছে আমি ঋণী, যারা নিজের মূল্যবান সময়, অর্থ, শ্রম, মেধা-বুদ্ধি, শ্রদ্ধা-¯েœহ, মায়া-মমতা ভালোবাসার বন্ধনে আমাকে আবদ্ধ করেছেন।
নাবা/এমএমএ/