তারুণ্যের দূত হয়ে সমাজে আলো ছড়ায় তারা


সংবাদদাতা। নাগরিক বার্তা.কম
চাঁদপুর: ভারতের প্রাক্তণ প্রেসিডেন্ট আবুল কালাম বলেছিলেন, স্বপ্ন সেটা নয় যা মানুষ ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেখে,স্বপ্ন সেটাই যা কিনা মানুষকে ঘুমাতে দেয় না।’ তেমনই এক স্বপ্নের বীজ বুনেছেন গ্রামীণ জনপদের এক ঝাঁক তরুণ।যাদের স্বপ্নই হলো মানুষের জন্য কাজ করা।আর এজন্য ২০ তরুণ মিলে গড়ে তুলেছে তাদের স্বপ্নের সংগঠন ‘ইয়ুথ বাংলা অ্যাসোসিয়েশন’।তাদের ভাল কাজের গল্প জানাচ্ছেন, রিফাত কান্তি সেন

গ্রামে থেকে নাকি কিছু করা যায় না।এমন প্রবাদ আগে থাকল্ওে প্রযুক্তির এ যুগে এসে গ্রামে থেক্ওে অনেক কিছু করা যায়।এক সময় মানুষ সাহায্যের জন্য শহুরে মানুষের দিকে হাঁ করে তাকিয়ে থাকতো,বিভিন্ন সংস্থ্যার দিক্ওে তাকাতে হতো সাহায্যের জন্য।কিন্তু কাল ক্রমে অনেকটাই পাল্টে গেছে এ রীতি।তরুণরা জেগেছে।্ওরাই এখন অবহেলিত,দরিদ্র,শোষিত মানুষের পাশে দাঁড়ায়। সামাজিক অপরাধ বাল্য বিবাহ,ইভটেজিং সহ বিভিন্ন ঘৃণিত অপরাধের বিরোধিতা করে সমাজে সচেতনতা সৃষ্টি করে তারা। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃত্তি পরীক্ষার ব্যবস্থা করে শিক্ষার্থীদের মধ্যে পুরুস্কার ্ও বিতরন করে তারা।তাদের এ কাজে সহায়তা করেন বিত্তবান শ্রেণি,পেশার মানুষেরা।
তাদের সংগঠনের প্রতিপাদ্য বিষয় হলো ,‘নতুৃন কিছু করো,ভালোর সাথে থাকো’।

নতুন কিছু করার লক্ষ্য নিয়ে তাদের পথচলা। গত ৩০ আগষ্ট তারা কড়ৈতলী উচ্চ বিদ্যালয়ে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে তাঁদের কার্যক্রমের যাত্রা শুরু করে। তার আগেই তারা ছোট ছোট ভাল কাজ যেমন ,বাল্য বিবাহে নিরুৎসাহিত করা, ঝড়ে পড়া শিক্ষার্থীদের স্কুল মুখী করতে কাজ করা, দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, বৃক্ষ রোপণ, সহ নানা রকম সামাজিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহন শুরু করেন।

ভাল কিছুর করার লক্ষ্য নিয়ে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।আমরা চাই আমাদের এ কাজে যারা বিত্তবান শ্রেণির মানুষ আছেন তারা এগিয়ে আসবেন। নতুন কিছু করে দেখাতে চাই। তারুণ্যের জয়গান গেয়ে যাবো চিরকাল। আমাদের প্রতিটি ভাল কাজ যেন অন্যদের উৎসাহ যোগায় সেদিক্ওে নজর রাখার চেষ্টা আছে বলে জানান সংগঠনের কর্মী মি. মেহেদী হাসান।

তিনি আরো বলেন, সমাজে অর্থবানরা যদি আমাদের মত তরুণদের সাথে এক হয়ে সামাজিক কাজে হাতবাড়ায় তবে আর আমাদের পিছিয়ে পরতে হবে না।তারুণ্য দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাবে।

মোঃ মেহেদী হাসান, হৃদয় দে, ফরিদুল ইসলাম, আকাশ মিত্র,শাহাদাৎ হোসেন, নুরে আলম,ফয়সাল হোসেন, রিয়াজুল ইসলাম, মাহিদ হোসেন, রাসেল হোসেন, শাহ পরান, সৈকত দে, মাহাবুব হোসেন, আরিফ হোসেন, সিয়াম হোসেন, তারিক মনোয়ার, মুশফিক পাটওয়ারি, রাকিব হোসেন, রাশেদ হোসেন, শামিম হোসেন।
এম.এম.আ/