ঢাবি ক্যাম্পাসে গণপরিবহণ নিয়ন্ত্রণে পলাশীর রাস্তা অবরোধ

পলাশীর মোড় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) এলাকার সংযোগস্থলের রাস্তাটি অবরোধ করে গণপরিবহণ নিয়ন্ত্রণ করছে সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার সকাল ৬টা থেকে রাস্তাটি বন্ধ করে দিয়েছে তারা। এই রাস্তা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের দিকে কোনো পরিবহণ প্রবেশ করতে দিচ্ছে না শিক্ষার্থীরা।

সারেজমিনে গিয়ে দেখা যায় এসএম হলের সাধারণ শিক্ষার্থীরা পালাক্রমে রাস্তা অবরোধ করে পাহারা দিচ্ছেন। তারা কোন ধরণের যানবাহনই এই রাস্তা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে বা বের হতে দিচ্ছে না। এ বিষয়ে সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরাও শিক্ষার্থীদের সাহায্য করছেন।

এসএস হলের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা দিয়ে ভারী যানবাহন প্রবেশ করার ফলে শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তার ঝুঁকিতে থাকে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতেও একজন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। সেখানে তিনি সমান্য আহত হলেও ঘটতে পারত বড় কোন দূর্ঘটনা। বিষয়টি তারা একাধিকবার প্রশাসনকে জানালেও কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি তাই তারা রাস্তা বন্ধ করে গণপরিবহণ নিয়ন্ত্রণ করছেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী ও এসএম হলের আবাসিক ছাত্র ইশতিয়াক আহমেদ বলেন, এই রাস্তা দিয়ে অনেক গণপরিবহন প্রবেশ করে। ফলে আমরা ঝুঁকিতে থাকি। আমরা এর আগেও এ বিষয়ে প্রশাসনকে জানিয়েছি। কিন্ত প্রশাসন এ বিষয়ে কোন পদক্ষেপ নেয়নি। তাই আমরা আজ সকাল ছয়টা থেকে রাস্তা অবরোধ করে রেখেছি। আজ সারাদিন আমরা রাস্তা অবরোধ করে রাখব। আমাদের দাবি হলো রাস্তার উপরে বার নির্মাণ করতে হবে, যাতে উঁচু পরিবহণগুলো বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রবেশ না করতে পারে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড.একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, শিক্ষার্থীরা গণপরিবহণ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য অনেক দিন থেকে বলে আসছে। আমরাও বড় বড় যানবাহন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি। সামনে ক্যাম্পাসে উঁচু গাড়ি নিয়ন্ত্রণে স্ট্যান্ড নির্মাণ করার পরিকল্পনা আছে আমাদের। তবে তা কবে নাগাদ বাস্তবায়ন করা হবে এ বিষয়ে কোন সদুত্তর দিতে পারেননি তিনি।
নাবা/ডেস্ক/কেএইচ/