ঢাকার পরে রংপুর বই মেলায় সততা স্টল

সদ্য সমাপ্ত অমর একুশে গ্রহন্থ মেলায় অংশ নেওয়া স্টল গুলোর মধ্যে চমক হিসেবে আলাদা নজর কেড়েছিল সামাজিক সংগঠন এবং প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান বিদ্যানন্দ‘র স্টলটি। মেলায় আগত দর্শনার্থীদের কাছে আদালা ভাবে নজর কেড়েছিলো ছিলো বিদ্যানন্দ প্রকাশনির বিক্রেতাবিহীন স্টল।

বাংলা একাডেমি প্রঙ্গনে পুকুর পাড়ের ৫৪ নাম্বার স্টলটি পুরো বই মেলা জুড়ে কোন ধরনের বিক্রয়কর্মী ছাড়াই পরিচালিত হয়েছে। স্টলটিতে বই পছন্দের পাশাপাশি বই কেনা, প্যাকেট করা এমনকি রশিদ লিখে টাকা পরিশোধ করা পর্যন্ত সব কাজ ই করতে হয়েছে ক্রেতাকে।

এরই ধারাবাহিতায় ঢাকা, চট্টগ্রামের পর এবার বিক্রেতা বিহীন স্টল নিয়ে রংপুরের বিভাগীয় বইমেলায় অংশ নিয়েছে তারা। রংপুরের টাউন হল সংলগ্ন বিভাগীয় সরকারি গণগ্রন্থাগারের মাঠে আয়োজিত এগারো দিন ব্যাপি “স্বাধীনতা রংপুর বইমেলা ২০১৯” এ ভিন্নধর্মী স্টল নিয়ে অংশ নিয়েছে সংগঠনটি।

গত কাল ৭ ই মার্চ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়ে আগামী ১৮ ই মার্চ পর্যন্ত চলবে এই মেলাটি। বিক্রেতাহীন স্টল সর্ম্পকে বিদ্যানন্দ স্টলের তত্ত্বাবাধায়ক আরাফাত নাগরিক বার্তাকে বলেন, ‘ ঢাকায় প্রথম বার আমরা অমর একুশে বই মেলায় বিক্রেতাবিহীন স্টল দিয়েছিলাম। আমরা অভাবনীয় সারা পেয়েছি। তাই আমরা চিন্তা করেছি এটি সমাজের জন্য একটি বার্তা। তাই আমরা এটি সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে চাই। আমরা বিদ্যানন্দের পক্ষ থেকে পথশিশুদের ১ টাকায় খাবার দিয়ে থাকি।

আমরা এ কাজ করতে গিয়ে একটা বিষয় দেখেছি এই সকল বাচ্চাদের মধ্যে সততার অভাব। তবে দিনে দিনে আমাদের চেষ্টার ফলে এই সকল বাচ্চাদের ভিতরে একটা মূল্যবোধ তৈরি হচ্ছে। এখন তারা খাবার খেয়ে চলে যায় না| নিজের থেকে টাকা দিয়ে যায়। আমরা এই বিষয়টিকে আরও ভালোভাবে শিশুদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে আমাদের প্রতিটি স্কুল এবং কোচিংয়ে এ সততা স্টোর চালু করেছি। যেখান থেকে শিশুরা নিজেরাই টাকা জমা দিয়ে প্রয়োজনীয় খাতা, কলম নিয়ে যায়।

এরই ধারাবহিকতায় আমরা আমাদের সমাজে এই বার্তাটি পৌছে দিতে চাই। যার কারণে আমরা এবারের বই মেলায় বিক্রেতাহীন স্টল চালু করেছি। বিদ্যানান্দ একটি সামাজিক সংগঠন। রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে বিভিন্ন শাখার মাধ্যমে তারা ১ টাকার বিনিময়ে পথশিশুদের খাদ্য দেয়াসহ বিভিন্ন কার্যক্রম সামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। তাদের কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য বিনামূল্যে শিশু শ্রেণি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে পর্যন্ত ভর্তি কোচিং। এছাড়াও প্রথম থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত বিদ্যানন্দ শিশু নিকেতন নামে দেশের বিভিন্ন জেলায় স্কুল পরিচালনা করছে।

নাবা/ নিউজ ডেস্ক/ এআর