চৌগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আজাদুর রহমান খান

চৌগাছা (যশোর) :  যশোরের চৌগাছা উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসাবে প্রচারণার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন আজাদুর রহমান খান । আজাদুর রহমান খান উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের মাড়ুয়া গ্রামের মৃত রফিকুল ইসলাম খানের পুত্র । পারিবারিক ভাবে তিনি রাজনৈতিক ও ঐতিহ্যপূর্ণ বংশ পরিবারের সন্তান । নিজেও ছাত্র জীবন থেকে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে কঠোরভাবে জড়িত ।
শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ শিক্ষা জীবনে আজাদুর রহমান খান এইচএসসি পাশ । তিনি এইচএসসি পাশ করেন মনিরামপুর মহাবিদ্যালয় থেকে ।
রাজনৈতিক অবস্থাঃ ১৯৯৬ সালে আজাদুর রহমান খান যশোর শহর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন । বর্তমানে তিনি চৌগাছা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য । এছাড়া তিনি বিভিন্ন সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান যেমন আড়পাড়া কিন্ডার কার্ডেন স্কুলের সভাপতি এবং চৌগাছা পাবলিক লাইব্রেরীর সদস্য ।
পারিবারিক পরিচিতিঃ আজাদুর রহমান খান উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের মাড়ুয়া গ্রামের বাসিন্দা । পিতা মৃত রফিকুল ইসলাম খান এবং তার বাবারা আটভাই । চাচাদের মধ্যে পাঁচ চাচা সরকারি কর্মকর্তা হিসাবে দায়িত্বরত । তন্মধ্যে চাচা হবিবর রহমান খান সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল হিসাবে কর্মরত । অপর চাচা তবিবর রহমান খান জগদীশপুর ইউনিয়নের বারবার নির্বাচিত একজন সফল চেয়ারম্যান । দাদা ছিলেন ইউছুফ খান যার নামে মাড়ুয়া ইউছুফ খান স্কুল এন্ড কলেজ স্থাপিত । শিক্ষাক্ষেত্র থেকে শুরু করে সমাজের বিভিন্ন সেবা মূলক প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে এই পরিবারের ভূমিকা অপরিসীম যা উক্ত জগদীশপুর ইউনিয়নবাসীর কাছে অজানা নয় । আট ভাইয়ের মধ্যে বড় ভাই মৃত রফিকুল ইসলাম খানের পুত্র আজাদুর রহমান খান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসাবে প্রচারণার কাজে ব্যস্ত । প্রচারণার কাজ করতে গিয়ে আজাদুর রহমান খান বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যান । তিনি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক সমাজের কাছে নিজের অব্যক্ত কথাগুলি ব্যক্ত করেন । তন্মধ্যে প্রথমে তিনি উপজেলার সর্বাধিক সনামধন্য সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অবস্থান করে শিক্ষকদের কাছে নিজের নির্বাচনের ক্ষেত্রে দোয়া ও সমার্থন চান । এসময় সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক অসীম কুমার দে বলেন নির্বচনে জয়ের পূর্ব পর্যন্ত প্রার্থীদের আনাগোনা বেশি দেখা যায় । জনগণকে অনেক আশা-ভরসা দেয় কিন্তু নির্বাচনে জয়ের পরে আর মনে থাকে না । মনে থাকে না নিজের প্রচার করা নির্বাচনী ইশ্তেহারের কথা । শিক্ষক অসীম কুমার দের কথার পরিপ্রেক্ষিতে ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আজাদুর রহমান খান বলেন, আমার পরিবারের একটা ঐতিহ্য আছে । এটা হারানোর ইচ্ছা আমার নেই । বর্তমানে শিক্ষিত সমাজ বিভিন্ন ভাবে শিক্ষার মানকে হারিয়ে ফেলছে । শিক্ষানুরাগী পরিবারের সন্তান হিসাবে শিক্ষিত মানুষের সম্মানকে ফিরিয়ে দিতে, সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ে, গরীব-দুঃখীদের সহযোদ্ধা হয়ে কাজ করবো এই ইচ্ছা আকাঙ্খা নিয়ে পথে নামেছি । আল্লাহ যদি ভালো করেন ভাগ্যে থেকে থাকে তাহলে সমাজ, রাষ্ট্র থেকে শুরু করে সকল পর্যায়ে কাজ করবো বলে আশা আছে । আশা করা যায় সেদিনও শিক্ষিত সমাজের সম্মান রাখার চেষ্টা করবো । সবশেষে সকল শিক্ষকের কাছে দোয়া চেয়ে বিদায় নেন । এসময় আজাদুর রহমানের সাথে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক সহ আরও রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ।
নাবা/এমএমএ/