চাঁদপুরের মুক্তিসৌধটি অরক্ষিত!

চাঁদপুর: দিবস এলেই পরিস্কার পরিচ্ছন্ন। বাকী সময় থাকে অবহেলা, অসম্মান ও অরক্ষিত। শহরের নিউ ট্রাক রোডে মুক্তিযুদ্ধে চাঁদপুরের প্রথম ৪ শহীদ স্মরণে নির্মিত ‘মুক্তিসৌধ’ এর এই অবস্থা বর্তমানে।

জানাগেছে, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে চাঁদপুরকে শত্রুমুক্ত রাখার জন্য বোমা তৈরী করেতে গিয়ে চাঁদপুরের প্রথম শহীদ হওয়া ৪ বীর সন্তান কালাম- খালেক- সুশীল- শংকর। তাদের স্মরণ করে রাখার জন্য এই মুক্তিসৌধ তৈরী করা হয়। এটি সংরক্ষণ করার দায়িত্ব পালন করেন শহীদ কালাম- খালেক- সুশীল- শংকর স্মৃতি সংসদ নামে সংগঠন। কিন্তু সংগঠনটির যারা দায়িত্বে রয়েছেন তারা অধিকাংশ বিভিন্ন পেশার ব্যস্ত মানুষ। সে কারণে সব সময় এসে খোঁজ নেয়া তাদের পক্ষে সম্ভব হয় না। কিন্তু স্থানীয়ভাবে যারা মুক্তিসৌধের আশপাশে বসবাস করেন তারা কোনভাবেই এটাকে সম্মান করতে চেষ্টা করেন না।

প্রায়ই এ পথ দিয়ে চলতে গেলে দেখা যায় মুক্তিসৌধের উপর ময়লা আবর্জনা পড়ে আছে। রিক্সা, ভ্যানগাড়ী দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। শিশুরা ভিতরে প্রবেশ করে খেলা-ধুলা করে, গবাদি পশু প্রবেশ করে ইত্যাদি।

এই স্মৃতি সৌধটি আমাদের জন্য কতটুকু সম্মান ও গৌরবের এটি স্থানীয়দের মাঝে জাগিয়ে তোলা প্রয়োজন। প্রয়োজনে এটিকে সব সময় পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে রাখার জন্য উদ্যোগ গ্রহন করতে হবে।
এমএমএ/