গাজীপুরে প্রতারক চক্রের ১৮ সদস্য আটক

অভিনব কায়দায় প্রতারণার মাধ্যমে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া চক্রের ১৮ জন সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। বুধবার গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। এ সময় প্রতারণার শিকার ১’শ ৭০ ব্যক্তিকে এ চক্রের হাত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার গাজীপুরের পোড়াবাড়ি র‌্যাব-১ এর কমান্ডার লে: আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য জানান।
চান্দনা চৌরাস্তার নুর টাওয়ারে লাইফওয়ে বাংলাদেশ (প্রাঃ) লিঃ নামের একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে। সাধারণ মানুষকে প্রতারিত করে আসছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন সিলেট জেলার জকিগঞ্জ থানার হাজারীচক গ্রামের আ: মালেকের ছেলে জহির আহম্মেদ (২৪), মানিকগঞ্জের শিবালয় থানার জনিকালসা গ্রামের ফজর আলীর ছেলে জুয়েল রানা(২৫), হবিগঞ্জের চুনারুঘাট থানার ঢুলনা গ্রামের সাফিউদ্দিনের ছেলে নুর উদ্দিন (২১), মানিকগঞ্জের শিবালয় থানার জনিকালসা গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে অসীম (৩০), নোয়াখালীর হাতিয়া থানার পুর্ববিরবীরি গ্রামের মোস্তফা কামালের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২৩), রংপুরের কাউনিয়া থানার হলদিবাড়ি গ্রামের আজিজুল ইসলামের ছেলে রাকিবুল ইসলাম রিপন (২২), একই জেলার কোতোয়ালি থানার আতল গ্রামের মমতাজ আলীর ছেলে আসাদ মিয়া (২৪), ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ থানার উচাকিলা গ্রামের সামসুল হকের ছেলে আজিজুল হক (২৪), রংপুরের পীরগাছা থানার চৈত্রকোল গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে রাশেদুল ইসলাম (২৪), একই জেলার বদরগঞ্জ থানার শিবপুর গ্রামের মাহাবুল হকের ছেলেমনিরুজ্জামান (২২), সিলেটের বিয়ানীবাজার থানার হাতিতিল্লা গ্রামের মানি লাল দেবের ছেলে সজীব দেব(২৩), ফরিদপুরের মধুখালীর আড়পাড়া গ্রামের রিয়াজুল ইসলামের ছেলে সোহান শেখ(২০), মৌলভিবাজারের কুলাউড়ার চাতলগাঁওয়ের আ: কালামের ছেলে আব্দুল সামাদ(২৩), সিলেটের বিয়ানীবাজারের মাছুরা গ্রামের জগলু আহাম্মেদের ছেলে ওসমানী আহম্মেদ ফুরকান (২১), যশোরের কোতোয়ালীর আন্দইলপোতা গ্রামের মোসলেম আলীর ছেলে মিরাজ হোসেন(২৩), ফরিদপুরের বোয়ালমারি থানার দীঘিরপাড় এলাকার রেজাউল ইসলামের ছেলে আমিনুল ইসলাম (৩৫), শেরপুরের ঝিনাইগাতী’র পৌর সপ্তম খিলা এলাকার আ: রহিমের ছেলে আয়ুব আলী (২৩), গাজীপুরের জয়দেবপুর থানার কুমুন গ্রামের মৃত. লাাল মিয়ার ছেলে হেলাল উদ্দিন(৩২) ।

এসময় তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা, রেজিষ্টার খাতা, অঙ্গিকারনা ও শর্তাবলি লেখা ভর্তি ফরম, মার্কেটিং প্রশিক্ষণের বই, ব্যাংকের চেক বই ১৯ টি মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয় ।

গ্রেফতারকৃত প্রতারক চক্রের দেওয়া তথ্যমতে উক্ত টাওয়ারের গোপন একটি কক্ষ থেকে ১ শত ৭০ জন ব্যক্তিকে উদ্ধার করা হয়েছে।

 

নাবা/ডেস্ক/হাফিজ