গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র কাঠামো ভেঙ্গে পড়েছে: মির্জা ফখরুল

বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র কাঠামো প্রায় ভেঙ্গে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন,বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আওয়ামী লীগ ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ক্ষমতাকে নিরঙ্কুশ করার লক্ষ্যে বিচার বিভাগকে অত্যন্ত সুচতুরভাবে দলীয়করণ করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আজ সোমবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন,পাবনায় শেখ হাসিনাকে বহনকারি ট্রেনে হামলা মামলায় বিএনপি নেতাদের সাজা ন্যায় বিচারের পরিপন্থী।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ঈশ্বদীতে ১৯৯৪ সালে সংঘটিত হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তারপরও একটি রাজনৈতিক দলের প্রায় সব নেতাকর্মীকে এই ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত করে তিন বছর পর অভিযোগপত্র দিয়ে ২৫ বছর পর রায় দেয়া হল। এতে প্রমাণ হয় এ রায় ন্যায় বিচারের পরিপন্থি ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তাই আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বিচার বিভাগের স্বাধীনতা বলতে কিছু নেই উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বর্তমানে বিচার বিভাগ সরকার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে।’ এছাড়া শুধু পাবনার রায় নয়, খালেদা জিয়ার মামলা নিয়েও আদালতের ওপর সরকার হস্তক্ষেপ করছে বলেও জানান তিনি। বিচার ব্যবস্থা নিয়ে শুধু বিএনপি নয়, সারা দেশের মানুষ হাতাশ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা সংবিধান সংশোধন সম্পর্কিত রায়ে পরিস্কারভাবে বলেছেন যে, বিচার ব্যবস্থা দলীয়করণের শিকার হয়েছে এবং জনগণ ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। নিম্ম আদালতে আইন মন্ত্রণালয়ের নিরঙ্কুশ প্রভাব নিশ্চিত করা হয়েছে এবং ন্যায় বিচার তিরোহিত হচ্ছে।

 

নাবা/ডেস্ক/হাফিজ