পাকিস্তানে মসজিদে বিস্ফোরণে ইমামসহ নিহত ৩, আহত ১৯

পাকিস্তানের বেলুচিস্তানের কোয়েটা শহরের একটি মসজিদে জুমার নামাজের সময় বোমা বিস্ফোরণে মসজিদের ইমামসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এতে আরও ১৯ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন বেলুচিস্তানের ডেপুটি পুলিশ ইন্সপেক্টর জেনারেল আব্দুল রাজ্জাক চীমা।

সিভিল হসপিটাল কোয়েটার মেডিকেল সুপারিন্টেডেন্ট (এমএস) ডা. সলিম আবরো’র বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে দেশটির শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম ডন।

শুক্রবার গণমাধ্যমটিতে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, আহতদেরকে এই হাসপাতালেই স্থানান্তর করা হয়েছে।

বেলুচিস্তানের চিফ মিনিস্টার জাম কামাল খান আলিয়ানি এই বিস্ফোরণের নিন্দা জানিয়েছেন এবং ঘটনাটির একটি পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন চেয়েছেন।

তিনি বলেন, রমজান মাসের এই পবিত্র দিনে যারা নিরপরাধ মানুষকে সন্ত্রাসবাদের লক্ষ্যে পরিণত করেছেন, তাদেরকে কঠোর শাস্তি ভোগ করতে হবে।

আলিয়ানি এই ঘটনায় নিহত ও আহতদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। তিনি শহরটির নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে আরও শক্তিশালী করারও আদেশও দিয়েছেন।

দেশটির প্রদেশ ও সীমান্ত অঞ্চল বিষয়কমন্ত্রী শেহরিয়ার আফ্রিদি টুইটারে শেয়ার করা এক পোস্টে এই হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেন, কোয়েটায় আবারও পৈশাচিক কর্মকাণ্ড দেশবিরোধী শক্তির।

তিনি লিখেছেন, এমনকি রমজানে তারা মসজিদের মতো বেসামরিক জায়গাকে হামলার জন্য বেছে নিয়েছে। এটা খুবই বেদনাদায়ক এবং বিস্ময়কর যে নিরপরাধ মানুষকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা হচ্ছে।

এদিকে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির স্পিকার আসাদ কাইসার এবং ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরি এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, মসজিদ ও অন্যান্য প্রার্থনাস্থলে হামলাকারীরা মানবতার শত্রু। তাদের সঙ্গে কোনো ধর্মের সম্পর্ক থাকতে পারে না।

 

নাবা/ আন্তর্জাতিক ডেস্ক/হাফিজ