‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’

ঈদ বরাবরই দেশীয় টেলিভিশনের আয়োজনে শাইখ সিরাজের পরিকল্পনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনায় দর্শককে ভিন্নমাত্রার আনন্দ দিয়ে থাকে ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’।

এ অনুষ্ঠানটি সারাদেশের মানুষের প্রাণের অনুষ্ঠানে রূপ নিয়েছে। কারণ এটাতে লেগে আছে মাটির সুবাস, শেকড়ের ঘ্রাণ। অনুষ্ঠানটিতে দর্শকের চোখ আটকে থাকে এর নির্মাণ মুন্সিয়ানা আর ভরপুর বিনোদনের কারণে।

অনুষ্ঠানে কৃষকদের নিয়ে আনন্দ-বিনোদনের পাশাপাশি থাকে সমাজ উন্নয়নমূলক বিভিন্ন ভাবনার কথা। যার ফলে এটি সমাজ উন্নয়ন ভাবনায় সংশ্লিষ্ট মহলকেও সজাগ করে তোলে।

প্রতিটি অনুষ্ঠানে থাকে একটি থিম। যার ভিত্তিমূলে থাকে কৃষক সমাজ। প্রতিবারই কৃষকের ঈদ আনন্দের পরিবেশ ও পরিবেশনায় বেশ ভিন্নতা পাওয়া যায়।

আর এবারের আয়োজনে সে ভিন্নতা পেয়েছে নতুন মাত্রা। একেবারেই অন্য প্রেক্ষাপটে নির্মিত হয়েছে এবারের ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ। এফডিসির বিশাল সেটে ধারণ করা হয়েছে এ আয়োজনটি। যাতে বিভিন্ন পারফরমেন্সে অংশ নিয়েছেন কৃষান-কৃষানিরা।

এসব পাররমেন্সে রয়েছে ভিন্ন মাত্রার চমক। দেশের সাধারণ কৃষকদের নিয়ে একটি বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান করার পাশাপাশি সচেতনতার একটি আয়নাও যে তৈরি করা যায় তা প্রকাশ পেয়েছে এবারের অনুষ্ঠানে।

‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’ অনুষ্ঠানটি ঈদুল ফিতরের পরদিন বেলা সাড়ে ৪টায় চ্যানেল আইতে প্রচার হবে।

 

নাবা/ডেস্ক/হাফিজ