কাটার মাস্টার মোস্তাফিজের বৌভাত শনিবার

সেমিফাইনালের আশা নিয়ে ইংল্যান্ডে গেলেও সেই আশা পুরণ করতে পারেনিন টায়গাররা। ভাল-মন্দ দুই মিলিয়েই বিশ্বকাপ আসর শেষ করেছে টাইগাররা। এর মধ্যে কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ আছেন কিছুটা ফুরফুরে মেজাজে। ৯ ম্যাচে ২০ উইকেট শিকার করে রয়েছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায়। পাশাপাশি পাকিস্তানের বিপক্ষে ৫উইকেট নিয়ে ঐতিহাসিক লর্ডসে অনার্স বোর্ডে নিজের নামও লিখিয়েছেন এ কাটার মাস্টার।

রোববার টিম বাংলাদেশ বিশ্বকাপ সফর শেষে দেশে ফিরলেও সাতক্ষীরা এক্সপ্রেস মোস্তাফিজ গ্রামের বাড়িতে আসেন ১০ জুলাই দুপুরে। কিন্তু বাড়িতে ফিরে দেখেন অন্যরকম চেহার। বাড়ির সামনে বড় গেট। উঠানে সামিয়ানা টানানো হয়েছে। সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার তারালি ইউনিয়নের তেঁতুলিয়ায় কাটার মাস্টারের গ্রামের বাড়িতে চলছে সাজসাজ রব। এর কারণ হিসেবে জানা গেলে, ১৩ জুলাই শনিবার কাটার মাস্টার মোস্তাফিজের বৌভাত। গত ২২ মার্চ ৫ লাখ ১ টাকা দেনমোহরে সামিয়ার সঙ্গে বিয়ে হয় কাটার মাস্টার মোস্তাফিজের। বিশ্বকাপের কারণে ছোটখাটে পরিসরে বিয়ে সারেন এই প্রেসার। তবে এবার জঁমকালো আয়োজনের মাধ্যমে নববধূ শিমুকে তুলে নেয়া হবে মোস্তাফিজের বাড়ি। বৌভাত উপলক্ষে আবারও বর-বউ সাজবেন সাতক্ষীরা এক্সপ্রেস মোস্তাফিজ-শিমু দম্পতি।

মোস্তাফিজের বড় ভাই মাহফুজার রহমান মিঠু বলেন, ‘মোস্তাফিজ গ্রামের বাড়িতে এসেছে ১০জুলাই দুপুরে। বিশ্বকাপ আসরে বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম আশানুরূপ ফল বয়ে আনতে পারেনি। তারপরও সাকিব ও মোস্তাফিজ ভালো খেলেছে। ৯ ম্যাচে ২০ উইকেট শিকার করে রয়েছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় আছে আমাদের মোস্তাফিজ। ৫ উইকেট নিয়ে ঐতিহাসিক লর্ডসে অনার্স বোর্ডে নিজের নামও লিখিয়েছেন এটা আমাদের জন্য গর্বের বিষয়।’

ছোট ভাইয়ের বৌভাত প্রসঙ্গে মিঠু বলেছেন, ‘নিউজিল্যান্ডের ওই ঘটনার পর বাড়িতে এসেও ওর (মোস্তাফিজ) মন অনেক খারাপ ছিল। সে কারণেই আমার হঠাৎ করে বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেই। বিশ্বকাপ ছিলো বিধায় ঘরোয়াভাবে বিয়ে দিয়ে হয়েছিল। সামনে আবার শ্রীলংকার সাথে সিরিজ আছে। সেজন্য বৌভাত দ্রুত করতে হচ্ছে। মুস্তাফিজ আমাদের সবার ছোট এবং অনেক আদরের সেজন্য ওর বৌভাতে আত্মীয়-স্বজনসহ অনেক অতিথিকে নিমন্ত্রণ করা হয়েছে। আশা করছি আত্মীয়-স্বজনসহ হাজার দু’য়েক অতিথি থাকবেন। আমাদের গ্রামের বাড়িতে গ্রামীণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে বৌভাত।’

তিনি আরও বলেন, ‘মাশরাফি ভাইসহ সকল ক্রিকেটারকে আমন্ত্রণ করা হয়েছে। অনেক ক্রিকেটার এখন ইংল্যান্ডে আছে। আমাদের অনুষ্ঠানে হয়তো এক/দুই জন ক্রিকেটার অংশ গ্রহণ করতে পারেন।’

প্রসঙ্গত, গত ২২ মার্চ সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার হাদিপুরে দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠজনদের উপস্থিতিতে ৫ লাখ ১ টাকা দেনমোহরে সামিয়ার সঙ্গে বিয়ে হয়েছে বাংলাদেশ দলের এই পেসারের। কালিগঞ্জের তেতুলিয়া গ্রামের হাজী আবুল কাশেম ও মাহমুদা দম্পত্তির ছোট ছেলে মোস্তাফিজ আপন মামাতো বোন সামিয়া পারভীনকে বিয়ে করেছেন। দেবহাটার হাদিপুর গ্রামের রওনাকুল ইসলাম বাবুর এক ছেলে ও চার মেয়ের মধ্যে সামিয়া তৃতীয়। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

 

নাবা/ডেস্ক/হাফিজ