এরশাদকে কৃত্রিম খাবার দেয়া হচ্ছে

হজমে সমস্যা থাকায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কৃত্রিমভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস চলছে। তার । তাই কৃত্রিমভাবে খাবার দেয়া হচ্ছে।

সোমবার সকালে রাজধানীর বনানীস্থ পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এরশাদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে ব্রিফিংয়ে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, তাকে ওষুধ দিয়ে ঘুমিয়ে রাখা হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা আগের মতোই।

তিনি শঙ্কামুক্ত নন। ব্লাড প্রেসার ও হার্টবিট স্বাভাবিক রয়েছে। সবকিছু ওষুধ ও যন্ত্রের সাহায্যে স্থিতিশীল রাখা হয়েছে।কিডনি কাজ না করায় স্পেশাল ডায়ালাইসিস দিয়ে শরীর থেকে পানি বের করেছেন চিকিৎসকরা বলে জানান জিএম কাদের।

এদিকে জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে বলেছেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ভালো আছেন বলা যাবেনা, তিনি শংকামুক্ত নন তবে বেঁচে আছেন। তিনি বলেন, ফুসফুস কিছুটা কাজ করছে, তাই অল্প অক্সিজেন দেয়াতেই শ্বাস স্বাভাবিক আছে। তবে তিনি এখনো শংকামুক্ত নয়।

জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি আরো বলেন, অত্যাধুনিক ডায়ালাইসিস হেমো ডায়া ফিল্টারেশন এর মাধ্যমে পল্লীবন্ধুর রক্ত থেকে অপ্রয়োজনীয় বর্জ্য অপসারণ করা হচ্ছে এবং হেমো পারফিউশন এর মাধ্যমে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, সব কিছুই যন্ত্র এবং ঔষুধের মাধ্যমে সচল রাখা হয়েছে। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেন, পল্লীবন্ধুর ব্লাড প্রেসার ও হার্টবিট স্বভাবিক রয়েছে। তবে, ফুসফুস, কিডনীসহ অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ স্বাভাবিকভাবে কাজ করলেই লাইফ সাপোর্ট খুলে ফেলা হবে।

গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি আরো বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে ঘুমের ঔষুধ ও বেদনা নাশক ঔষুধ দিয়ে ঘুম পাড়িয়ে রাখা হয়েছে। অবস্থার উন্নতি হলেই তাকে সচেতন করা হবে।

তিনি বলেন, প্রতিদিনই হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শরীরে রক্তের কিছু কিছু উপাদান দেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ভালো আছেন বলা যাবেনা, তিনি শংকামুক্ত নয়, তবে বেঁচে আছেন।

গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সুস্থতা কামনায় দেশবাসীর দোয়া কামনা করেছেন।
নাবা/ডেস্ক/কেএইচ/