‘ইসলামি পর্যটনকে বিশ্ব বাণিজ্যের ব্র্যান্ড হিসেবে গড়ে তুলুন’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইসলামি পর্যটন শিল্প বিশ্ব বাণিজ্যের ব্র্যান্ড হিসেবে গড়ে উঠতে পারে। এজন্য আমাদের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা ও রোডম্যাপ করতে হবে।

তিনি বলেন, ওআইসির সদস্যভুক্ত রাষ্ট্রসমূহ একে অপরকে পর্যটন শিল্পে উন্নয়নের জন্য সহায়তা করতে পারে।

বৃহস্পতিবার ‘ঢাকা- দ্য ওআইসি সিটি অব ট্যুরিজম ২০১৯’ এর উদযাপন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘পর্যটন খাতের গুরুত্ব অনুধাবন করে জাতির পিতা বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন গঠন করেন। আমরাও এই পর্যটনের উন্নয়নে কাজ করছি। আমরা সারাদেশে অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি।’

আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে কক্সবাজার বিমানবন্দরকে গড়ে তোলার প্রয়াস জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে কক্সবাজার বিমানবন্দরকে উন্নত করে দিচ্ছি আমরা। ওআইসিভুক্ত দেশ চাইলে আমরা আমাদের সমুদ্র সৈকতের একটা অংশ তাদের জন্য আলাদাভাবে উন্নত করে দিতে পারি।

ঢাকার বিভিন্ন ঐতিহ্যের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঢাকায় অনেক প্রাচীন সভ্যতার নিদর্শন পাওয়া যায়। শুধু মুসলিম উম্মাহর জন্য না, সারা বিশ্বের মানুষের জন্য আমরা ঢাকাকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে পারি। আমাদের এখানে বিশ্ব উজতেমা হয়। যা হজের পর মুসলিমদের সবচেয়ে বড় জমায়েত। ঢাকার তেহারি, বাখরখানি খাদ্য হিসেবে খুব আকর্ষণীয়। ঢাকার জামদানি, ঢাকার মসলিন এর সুনাম ছিলো দীর্ঘদিনের। এমন অনেক নিদর্শন আছে ঢাকায়।
নাবা/ডেস্ক/কেএইচ/