পঞ্চগড়ে কাঁচা চা পাতার মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে বিক্ষোভ

পঞ্চগড়ে কাঁচা চা পাতার মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে বিক্ষোভ

কাঁচা চা পাতার মূল্য বৃদ্ধির দাবিতে পঞ্চগড়ে চা চাষিরা বিক্ষোভ সমাবেশ ও প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান করেছে । আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের শের-ই-বাংলা পার্কের মুক্ত মঞ্চে সবাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।  বাংলাদেশ স্মল টি গার্ডেন ওনার্স এসোসিয়েশন এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় সহসভপতি আব্দুল লথিব তারিন,সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক, নাগরিক কমিটির সভাপতি বশিরুল আলম, চা চাষী ও জেলা শিল্প কলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক আবু তোয়াবুর রহমান, সাংবাদিক ও চা চাষি মোহাম্মদ শাহাজালাল, চা চাষি এবিএম আক্তারুজ্জামান শাহাজাহানসহ প্রমুখ। 

এসময় বক্তারা বলেন পঞ্চগড়ের চা শিল্প আজ হুমকির মুখে । কাঁচা পাতার মূল্য না বাড়ালে চা চাষিদের পথে বসতে হবে। ইতোমধ্যে অনেক চা চাষি চা পাতা কেটে ফেলে দিচ্ছেন । তাই কাঁচা চা পাতার মূল্য বৃদ্ধির জন্য তারা  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষকন করেন। 

এসময় বক্তারা আরও বলেন আগামী ১৫ দিনের মধ্যে চা পাতার মূল্য বৃদ্ধি না করলে চা চাষিরা পঞ্চগড় কে অঢ়ল করে দেবে। প্রয়োজনে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। 

তারা বলেন কারখানা মালিকরা বৃটিশ নীলকরদের মতো আচরন করছে । শুরুতে তারা ৪০ টাকা ৪২ টাকা দর দিয়েছে। পরে দাম কমিয়ে প্রতিকেজী চা পাতা  ৩০/৩৫ টাকা দিয়েছে । আর এখন দিচ্ছে মাত্র ১০ থেকে ১২ টাকা ।

সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। শহরের বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বিক্ষোভটি শেষ হয়। পরে  প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লিখিত স্মারক লিপি জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আব্দুল মান্নানের হাতে তুলে দেয়া হয়। এর আগে স্মারকলিপি পাঠ করে শোনান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যন আনোয়ার সাদাত সম্রাট।

স্মারকলিপিতে চা  আমদানী বন্ধ,পঞ্চগড়ে সরকারি চা কারখানা স্থাপন, কাঁচা চা পাতার ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করাসহ ৬ টি দাবি তুলে ধরা হয়।


নাবা/ডেস্ক/হাফিজ

    মতামত দিন