ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ঢামেকে ব্যবসায়ীর মৃত্যু

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ঢামেকে ব্যবসায়ীর মৃত্যু
ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর ৬ টায় তার মৃত্যু হয়। মারা যাওয়া যুবকের নাম গিয়াস উদ্দিন। বয়স ৪০। তার বাবার নাম আবদুল আউয়াল। চাঁদপুরের মতলব উপজেলার পশ্চিম সিংড়ায় তার বাড়ি। 

বর্তমানে পোস্তগোলা ব্রিজ এলাকায় পরিবারের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকতেন তিনি। গিয়াস এক ছেলে ও দুই মেয়ের জনক ছিলেন। তিনি পাথরের ব্যবসা করতেন।

গিয়াসের বড় ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, গিয়াস কয়েকদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন। স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়ার পর অবস্থার অবনতি হলে বুধবার রাতে তাকে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়। তাকে হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ইমার্জেন্সিতে ভর্তি করা হয়।
 
বৃহস্পতিবার ভোর ৪টায় হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে মারা যান তিনি।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের পুলিশ পরিদর্শক মোঃ বাচ্চু মিয়া জানান, আইনি প্রক্রিয়া শেষে স্বজনরা লাশ নিয়ে গেছেন।
গত তিন দিন (রোবি, সোম ও মঙ্গলবার) ক্রমান্বয়ে হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমতে দেখা গেলেও বুধবার তা বেড়েছে। ২৪ ঘণ্টায় (মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) নতুন করে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৬২৬ জন, যা আগের ২৪ ঘণ্টার তুলনায় ৫৪ জন বেশি। এর মধ্যে রাজধানীর ৪১টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ৭১১ জন এবং দেশের অবশিষ্ট জেলাগুলোয় ৯১৫ জন রয়েছে।

বুধবার সারা দেশের বিভিন্ন স্থানে ৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্য অনুযায়ী ২১ আগস্ট পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৮৫ জনে।

যদিও চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২০ আগস্ট পর্যন্ত সরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা দেখানো হয়েছে ৪৭ জন। একই সময়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা হচ্ছে ৫৭ হাজার ৯৯৫ জন। তবে বেসরকারি হিসাবে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা আরও বেশি হবে বলে জানায় সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্র।
নাবা/ডেস্ক/কেএইচ/

রিলেটেড নিউজঃ

    মতামত দিন