কাশ্মীর ইস্যুতে ইমরান-রুহানি ফোনালাপ

কাশ্মীর ইস্যুতে ইমরান-রুহানি ফোনালাপ

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে সেখানকার শিক্ষার্থীরা। ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের চলমান সংঘাতময় পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে তারা। 

ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে ফোনালাপ করেছেন।

ইরানি গণমাধ্যম পার্স টুডের খবরে বলা হয়, এবারের ফোনালাপে রুহানি ভারত ও পাকিস্তান উভয় পক্ষকে এসব ইস্যুতে আরও বেশি সংযত হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। কেননা এটাই এক মাত্র পথ যার মাধ্যমে কাশ্মীরের বিদ্যমান সংকট থেকে উত্তরণ সম্ভব।

পাক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোন আলাপে ইরানি প্রেসিডেন্ট বলেন, কাশ্মীর সমস্যার কোনো সামরিক সমাধান নেই, কেননা উভয় পক্ষকে সম্পূর্ণ কূটনৈতিক উপায়েই এই সমস্যার সমাধান করতে হবে। আমরা ভারত ও পাকিস্তানকে আরও বেশি সংযম প্রদর্শনের মাধ্যমে কাশ্মীরে হত্যাকাণ্ড এবং নিরাপত্তাহীনতা ঠেকানোর জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

ফোনালাপ রুহানি আরও বলেন, আঞ্চলিক নিরাপত্তা, বিশেষ করে ভারত উপমহাদেশের নিরাপত্তা তেহরানের কাছে ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও শান্তি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে মুসলমানদের অধিকার রক্ষায় ইরান অতীতের মতো সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাবে। এক্ষেত্রে কোনো ধরনের কার্পণ্য করা হবে না।

এ দিকে কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ জানিয়ে এবং সেখানকার জনগণের ওপর নির্যাতনের অভিযোগে ইরানে এক বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। যেখানে চলমান ইস্যুটিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নিষ্ক্রিয় ভূমিকার কথাও উল্লেখ করা হয়। 

ভারত শাসিত এই অঞ্চলটিতে চলমান বিপন্নতার প্রতিবাদে সোমবার ঈদের দিন সন্ধ্যায় দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় পবিত্র মাশহাদ শহরে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইরানি শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদী সমাবেশটির আয়োজন করেন। যেখানে বিক্ষোভকারীরা কাশ্মীরে হত্যা-নির্যাতনের তীব্র প্রতিবাদ জানান; একই সঙ্গে ভারত সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের বিরুদ্ধে কঠোর সমালোচনা করেন। 

ইরানি শিক্ষার্থীদের আয়োজিত সেই কর্মসূচিতে বলা হয়, সাম্রাজ্যবাদীরা এই অঞ্চলকে নিয়ে যে ষড়যন্ত্র করছে সে বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। পাশ্চাত্যের দেশগুলো এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা মানবাধিকার রক্ষার বিষয়ে বড় বড় বুলি আওড়ালেও কাশ্মীরে হত্যা-নির্যাতনের বিষয়ে তারা এখন নীরব রয়েছে।

নাবা/ডেস্ক/কেএইচ/

এখানে বিজ্ঞাপন দিন

রিলেটেড নিউজঃ

0 মন্তব্য

মতামত দিন