প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে সরকার

  • প্রকাশিতঃ 2019-07-20 14:10:33
প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে সরকার

বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন নিয়ে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নালিশকারী প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানিয়ে নেট দুনিয়া সোচ্চার। দল-ধর্ম নির্বিশেষে সবাই তার বক্তব্যকে মিথ্যাচার আখ্যা দিয়ে দেশদ্রোহী হিসেবে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছেন।

এ নিয়ে আজ শনিবার সকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে করা অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তার বক্তব্য সম্পূর্ণ অসত্য ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তিনি যা বলেছেন সেসবের তথ্য প্রমাণ না পাওয়া গেলে তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আজ দুপুরে যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রিয়া সাহার বক্তব্য সম্পূর্ণ অসত্য, মিথ্যা ও বানোয়াট। এ বক্তব্য কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। এ ধরনের উস্কানিমূলক বক্তব্যে উগ্রবাদীদের উৎসাহিত করে। এ ছাড়া তার এ বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহী। দেশদ্রোহী হিসেবে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সেতুমন্ত্রী জানান, প্রিয়া সাহার বক্তব্যের সঙ্গে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা কেউ একমত নন। বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতাকে উস্কে দিতে তিনি এ ধরনের বক্তব্য দিয়েছেন। বাংলাদেশের মানুষ সাম্প্রদায়িকতাকে ঘৃণা করে।

তিনি জানান, দেশদ্রোহী হিসেবে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ প্রসেস শুরু হয়ে গেছে।

অপরদিকে, বিষয়টি নিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার বলেন, প্রিয়া সাহাকে আইনের আওতায় আনতে কাজ শুরু হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ১৬ জুলাই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ধর্মীয় নেতা ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে হোয়াইট হাউজে সাক্ষাৎ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বাংলাদেশি পরিচয়ে প্রিয়া সাহা নামের নারী ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন নিয়ে বিভ্রান্তিকর মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করেন। এ সংক্রান্ত ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় শুরু হয়। প্রিয়া সাহা বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টনা ঐক্য পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

প্রিয়া সাহার এ বক্তব্য নিয়ে সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ দেশজুড়ে তোলপাড় চলছে।

নাবা/ডেস্ক/তারেক

রিলেটেড নিউজঃ

0 মন্তব্য

মতামত দিন